চার দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালার সমাপনী অনুষ্ঠানে জেলা ও দায়রা জজ ॥ আমেরিকা ও বাংলাদেশ আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় কাজ করছে

u.s & jela daira joj pic (06.11.14)সিলেট জেলা জজ কোটের জেলা ও দায়রা জজ মো. মিজানুর রহমান বলেছেন, আমেরিকা ও বাংলাদেশ আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় যে কাজ করে যাচ্ছে এতে দুইদেশের বিচারপ্রার্থী মানুষ উপকৃত হবে। ইউএস ডিপার্টমেন্ট অব জাস্টিস বাংলাদেশে পিপি ও এপিপিদের প্রশিক্ষণ দিয়ে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় কাজ করছে। দেশের আইন পেশায় যারা জড়িত তাদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করলে আইনের শাসন আরও সুদৃঢ় হবে। ইউএস ডিপার্টমেন্ট অব জাস্টিসের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে আমেরিকা ও বাংলাদেশর মধ্যকার ভ্রাতৃত্বের বন্ধন আরও জোরদার হবে।
গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে সিলেটের একটি হোটেলের হলরুমে সিলেট ও সুনামগঞ্জের পিপি ও এপিপিদের নিয়ে ইউএস ডিপার্টমেন্ট অব জাস্টিস আয়োজিত চারদিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালার শেষ দিনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
সমাপনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, ইউএস অ্যামব্যাসি ঢাকার ট্রায়াল অ্যাটর্নি টমাস ডহার্টি, ইউএস ডিপার্টমেন্ট অব জাস্টিসের এ্যাসিস্ট্যোন্ট ইউনাইটেড স্টেটস অ্যাটর্নি ডেন শিয়েজ, অর্গানাইজড ক্রাইম ডিভিশনের ট্রায়াল অ্যাটর্নি এনডু ক্রেইটন, প্রোগ্রাম ম্যানেজার চার্লস এক্স, সিলেট জেলা জজ কোর্টের পিপি মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, সহকারী লিগ্যাল এডভাইজার সাহেদুল হক, এডিশনাল পিপি ও প্রোগ্রামের সমন্বয়কারী শামসুল ইসলাম প্রমুখ।
ইউএস অ্যামব্যাসি ঢাকার ট্রায়াল অ্যাটর্নি টমাস ডহার্টি বলেন, সিলেট জেলা জজ কোর্টের পিপিরা এত দক্ষ যে, তারা প্রশিক্ষকদের অত্যন্ত প্রশংসা কুড়িয়েছেন। এতেই বোঝা যায় বাংলাদেশের বিচার ব্যবস্থা খুবই উন্নত। আমরা আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় এরকম প্রশিক্ষণের ধারাবাহিকতা বজায় রাখব।
প্রশিক্ষণার্থীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- মফুর আলী, নিজাম উদ্দিন, নওশাদ আহমদ চৌধুরী, শাহ মোশাহিদ আলী, কিশোর কুমার কর, ফারুক আহমদ চৌধুরী, আত্তর আলী, আনোয়ার হোসেন, আলতাফ হোসেইন, আবদুল হাই, আলী মোস্তফা মিশকাতুন নূর, শ্যামল সিংহ, কাওসার হাসান সিমন, সালমা সুলতানা, মোস্তফা শাহীন চৌধুরী, অরুন চন্দ্র নাথ, শাহজাহান চৌধুরী, শামসুল আবেদীন, খায়রুল কবীর রুমেন, নজরুল ইসলাম, দেবাংশু শেখর দাস, মো. মিজানুর রহমান, শাহিদুল হাসমত খোকন।
পরে সিলেট ও সুনামগঞ্জের অংশগ্রহণকারী ২৪ জন পিপি ও এপিপিদের সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়। বিজ্ঞপ্তি