নাশকতা মামলায় গ্রেফতার দেখানো হলো খালেদা জিয়াকে

কাজিরবাজার ডেস্ক :
কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে গাড়ি পোড়ানোর তিন মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আদালতের জারি করা প্রোডাক্টশন ওয়ারেন্ট (পিডব্লিউ) সোমবার (১২ ফেব্র“য়ারি) সন্ধ্যায় কারাগারে এসে পৌঁছেছে।
কারা অধিদফতরের মহাপরিদর্শক (প্রিজন) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সৈয়দ ইফতেখার উদ্দিন বলেন, সন্ধ্যায় খালেদার বিরুদ্ধে আদালতের প্রোডাকশন ওয়ারেন্ট কারাগারে এসে পৌঁছেছে।
এর আগে চৌদ্দগ্রামে বাসে নাশকতায় ৮জন নিহতের ঘটনায় ২০১৫ সালের জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারি মাসে তিনটি মামলা করা হয়। এসব মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ দলটির সাতজন শীর্ষ নেতাকে হুকুমের আসামি করা হয়।
পরবর্তীতে মামলার চার্জশিটে ৬৮জনকে অভিযুক্ত করেছে পুলিশ।
নাশকতার এসব মামলায় গতবছরের জানুয়ারিতে খালেদা জিয়াসহ অন্য আসামিদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন কুমিল্লার একটি আদালত।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশারফ হোসনসহ অন্য আসামিরা জামিন নিয়েছেন। তবে খালেদা জিয়া জামিন নেননি।
জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়াকে পাঁচবছরের কারাদণ্ড দেন আদালত। একই মামলায় খালেদাপুত্র ও বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ আরও পাঁচজনকে ১০ বছর করে সাজা দেওয়া হয়।
বাকি আসামিরা ‘পলাতক’ থাকলেও রায়ের পর থেকেই পুরান ঢাকার পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি রয়েছেন খালেদা জিয়া।
এর মধ্যেই সোমবার খালেদা জিয়াকে নাশকতার তিন মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। নাশকতা ও দুর্নীতি মিলিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন মোট ৩৬টি মামলার আসামি।