বিমানবন্দরে প্রবাসী হয়রানি ও অনিয়ম বৃদ্ধিতে জালালাবাদ প্রবাসী কল্যাণ পরিষদের উদ্বেগ

জালালাবাদ প্রবাসী কল্যাণ পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির মতবিনিময় সভায় দেশের বিভিন্ন বিমান বন্দরে প্রবাসী হয়রানি বৃদ্ধিতে উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়েছে। বক্তারা সিলেট এম.এ.জি ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরসহ প্রবাসীরা দেশে এলে পরিবার পরিজন নিয়ে কটা দিন দেশে কাটাতে চান কিন্তু মামলার বেড়াজাল, চুরি-ডাকাতি হয়রানির ভয়ে প্রবাসীরা আটকা পড়ে বেসামাল হয়ে স্বদেশ ত্যাগ করতে বাধ্য হন। বক্তারা সম্প্রতি সিলেট শহর ও শহরতলীর বিভিন্ন স্থানে প্রবাসীদের বাসা-বাড়ীতে চুরি-ডাকাতি বৃদ্ধি পাওয়ায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেন।
পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি অধ্যাপক এম.শফিকুর রহমানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সেলিম আহমেদ চৌধুরীর পরিচালনায় গত ২০ নভেম্বর বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টায় জিন্দাবাজার সমবায় ভবনস্থ কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত মত বিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন যুক্তরাজ্য প্রবাসী ফারুক আহমেদ চৌধুরী, পরিষদের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, ফটো সাংবাদিক মোঃ দুলাল হোসেন, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট মুফতি আব্দুর রহমান চৌধুরী, মইনউদ্দিন আহমেদ, এডভোকেট মহীউদ্দিন আহমেদ, প্রফেসর আব্দুস সাত্তার, ডাঃ হাবিবুর রহমান, ইদ্রিস আলী প্রমুখ।
সভায় বক্তারা, প্রবাসীদের এহেন হয়রানির কারণে দেশে প্রবাসী বিনিয়োগ বাধাগ্রস্ত হবে এবং বিমান বন্দরে নানাভাবে হয়রানির কারণে প্রবাসীরা পরিবার পরিজন নিয়ে এসে প্রথমে হোচট খান। চুরি-ডাকাতি, খুন-গুমে আতঙ্কে প্রবাসীরা পরিজন নিয়ে দেশে আসা এবং বিনিয়োগের আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছেন। অচিরেই কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ না করলে দেশ ও রাষ্ট্রের বিরাট ক্ষতি আসন্ন। সভায় বক্তারা প্রবাসী হয়রানি বন্ধে কার্যকরি পদক্ষেপ গ্রহণ করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহবান জানান। বিজ্ঞপ্তি