ওসমানীনগরের বন্যা দুর্গত এলাকা পরিদর্শনকালে ইলিয়াস পতœী লুনা ॥ ডাইক সংস্কারের নামে লুটপাট করছে আ’লীগ ও জাতীয় পার্টির এমপিরা

ওসমানীনগর থেকে সংবাদদাতা :
বিএনপি চেয়ারপারর্সন বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা ও নিখোঁজ বিএনপি নেতা এম ইলিয়াস আলীর স্ত্রী তাহসিনা রুশদির লুনা বলেছেন, অত্র অঞ্চলের খেটে খাওয়া মানুষের সুখ দুঃখের অংশীদার ছিলেন এম ইলিয়াস আলী। তিনি বালাগঞ্জ, ওসমানীনগর ও বিশ্বনাথের সাধারণ মানুষের ভাগ্যের উন্নয়ন সহ এলাকার সার্বিক উন্নয়নে কাজ করে যাওয়ায় সাধারন মানুষের অন্তরে স্থান করে নিয়েছিলেন। ইলিয়াস আলী সংসদ সদস্য থাকা অবস্থায় এই এলাকায় কুশিয়ারা ডাইক নির্মাণসহ পাকা করণের কাজ করেছিলেন। কিন্তু পরবর্তীতে বাঁধ সংস্কারের নামে আওয়ামীলীগ ও জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্যরা লুটেপুটে খাওয়ায় আজ ডাইকের স্থানে স্থানে ভেঙ্গে হাজার হাজার মানুষ পানিবন্দি হয়ে দুর্ভোগ পোহাচ্ছে। এলাকার মানুষকে উন্নয়ন বঞ্চিত রেখে লুটপাটের রাজত্ব কায়েম করার জন্য আওয়ামীলীগ সরকার কোটি মানুষের নেতা এম ইলিয়াস আলীকে গুম করে রেখেছে। ইলিয়াস আলীকে আপনাদের মাঝে ফিরিয়ে আনতে আপনারা আল্লাহর কাছে দোয়া করুন। এলাকার সকল দুর্যোগকালীন সময়ে ইলিয়াস আলীর মতো আমিও আপনাদের পাশে থাকব। বুধবার দুপুরে ওসমানীনগর উপজেলার সাদীপুর ইউনিয়নের শেরপুর ও কালনিচর ও চাতলপার বন্যা দুর্গত এলাকা পরিদর্শন কালে তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় তাজপুরস্থ সৈয়দ শাহ তাজ উদ্দিন (র) মাজার জিয়ারত করেন এবং কালনিচর এলাকার বন্যার্তদের কিছু পরিবারের মধ্যে নগদ অর্থ প্রদান করেন। পরিদর্শনকালে উপস্থিত ছিলেন, ওসমানীনগর উপজেলা চেয়ারম্যান, জেলা বিএনপি নেতা ময়নূল হক চৌধুরী, জেলা বিএনপির সঞসভাপতি ফখরুল ইসলাম ফারুক, রিয়াদ বিএনপির সিলেট বিভাগের সভাপতি শাহ ফুজায়েল আহমদ, সিলেট জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক ময়নূল হক, ওসমানীনগর উপজেলা বিএনপির সভাপতি মোতাহির আলী, বিশ্বনাথ উপজেলা বিএনপির সভাপতি জলাল উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক লিলু মিয়া, যুগ্ম সম্পাদক আব্দুল হাই, জেলা বিএনপির সদস্য রাকিবুল ইসলাম, বিশ্বনাথ উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আহমেদ নুর উদ্দিন, ওসমানীনগরের ভাইস চেয়ারম্যান বিএনপি নেতা গয়াছ মিয়া, ওসমানীনগর উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক শাহ ইয়াহইয়া, বালাগঞ্জ উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রেফা বেগম, ওসমানীনগরের ভাইস চেয়ারম্যান মুসলিমা বেগম চৌধুরী, বিএনপি নেতা সাদীপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আব্দুর রব, বালাগঞ্জ সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বিএনপি নেতা আব্দুল মুনিম, বিশ্বনাথ উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক নানু মিয়া, ওসমানীনগর উপজেলা যুবদলের আহবায়ক নজরুল ইসলাম, উপজেলা নেতা ইসলাম উদ্দিন, আহবাবুল হোসেন আহবাব, সাদিপুর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আব্দুর রব আল মামুন, সাধারণ সম্পাদক আলী আছকর ফয়েজ, সাংগঠনিক সম্পাদক বখতিয়ার আহমদ,দপ্তর সম্পাদক শফিক উদ্দিন, বিশ্বনাথ উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি শাহ আমির উদ্দিন, ওসমানীনগর উপজেলা ছাত্রদলের সদস্য সচিব রায়হান আহমদ, বিশ্বনাথ উপজেলা যুবদল নেতা সাইদুর রহমান রাজু, ময়নূল হক, ছাত্রদল নেতা আহমেদ দুলাল, হামিদ সিকদার, সুহানোর রহমান চুনু, এনামূল হক, বিশ্বনাথ ডিগ্রি কলেজ ছাত্রদলের সভাপতি রাসেল আহমদ, যুগ্ম সম্পাদক শাহ টিপু, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম জুনেদ, সাবেক ছাত্রনেতা সৈয়দ হুমায়েল আহমদ,তাজপুর ডিগ্রি কলেজ ছাত্রদলের সদস্য সচিব জুয়েব আহমদ, কলেজ ছাত্রদল নেতা জে আই সুহান, সাব্বির আহমদ, তাজপুর ইউনিয়ন ছাত্রদলের ভারপ্রপাত সভাপতি কবির আহমদ, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক লায়েছ আহমদ, যুগ্ম সম্পাদক সুবাব আহমদ প্রমুখ।