ছাতকের ২১টি গ্রামে পল্লী বিদ্যুতের সংযোগ প্রদান

সুনামগঞ্জ থেকে সংবাদদাতা :
পল্লী বিদ্যুতের আলোয় আলোকিত হলো ছাতকের ২১টি গ্রাম। গত দু’দিনে উপজেলার ২১টি গ্রামে বিদ্যুৎ সংযোগের উদ্বোধন করেন, সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিক। শুক্রবার বিকেলে উপজেলার ছৈলা-আফজালাবাদ ইউনিয়নের পায়রাবন্দর, তেঘরী, জগন্নাথপুর, আনন্দ নগর, লাড়ীগাঁও, মির্জাপুর, লাকেশ্বর, বড় পলিরগাঁও, ছোট পলিরগাঁও, কহল্লা, খলাগাঁও ও শাসন গ্রামে বিদ্যুৎ সংযোগের উদ্বোধন করেন তিনি। এর আগে বৃহস্পতিবার দক্ষিণ খুরমা ইউনিয়নের মুনীরগাতি, খুরমা গ্রামসহ ইউনিয়নের ৯টি গ্রামের বিদ্যুৎ সংযোগের উদ্বোধন করা হয়। বিদ্যুৎ সংযোগ উদ্বোধন উপলক্ষে শুক্রবার বিকেলে ছৈলা-আফজলাবাদ ইউনিয়নের তেঘরী গ্রামবাসীর উদ্যোগে আয়োজিত এক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিক বলেন, বিদ্যুৎ নামের সোনার হরিণ এখন আমাদের হাতের মুঠোয় চলে এসেছে। আগে ছাতক-দোয়ারার মানুষ ভারতের মেঘালয়ের পাহাড় আর লাফার্জ কোম্পানির দিকে তাকিয়ে বিদ্যুতের স্বপ্ন দেখতো। এখন আর বিদ্যুতের জন্য স্বপ্ন দেখতে হয়না। বঙ্গবন্ধু কন্যার নেতৃত্বে ইতিমধ্যেই ছাতক উপজেলায় প্রায় ৮০ভাগ বিদ্যুতায়ন সম্পন্ন হয়েছে। এর ধারাবাহিকতা অব্যাহত রয়েছে। ২০১৮ সালের মধ্যেই ছাতক-দোয়ারার প্রতিটি গ্রামে বিদ্যুৎ পৌছে দেয়া হবে। সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিক দেশে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট দেয়ার জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানান। গোবিন্দগঞ্জ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক আলহাজ্ব আব্দুর রবের সভাপতিত্বে ও আওয়ামীলীগ নেতা খালেদ হাসানের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, সুনামগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির জিএম অখিল কুমার সাহা, ছাতক উপজেলা আ’লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ফজলুর রহমান, ছাতক পৌরসভার প্রতিষ্টাকালীন চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল ওয়াহিদ মজনু, উপজেলা আ’লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক সৈয়দ আহমদ, ছৈলা-আফজালাবাদ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান গয়াছ আহমদ, সুনামগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির পরিচালক পীর মোঃ আলী মিলন প্রমুখ।