কারাগারের সকল বন্দিদের বালিশ দেয়া হবে

কাজিরবাজার ডেস্ক :
কারা মহাপরিদর্শক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সৈয়দ ইফতেখার উদ্দীন বলেছেন, কারাগারের সকল বন্দিদের একটি করে বালিশ দেয়া হবে। বর্তমানে সাধারণ বন্দিদের তিনটি করে কম্বল দেয়া হলেও কোন বালিশ দেয়া হয় না। সেখান থেকে একটি করে কম্বল কমিয়ে তার পরিবর্তে প্রতিবন্দিকে একটা করে বালিশ দেয়া হবে। বন্দিদের জন্য বালিশ ক্রয় করতে বর্তমানে টেন্ডারের কাজ চলছে। আশা করছি, আগামি অর্থবছরেই আমরা এটা দিতে পারব।
তিনি বলেন, বর্তমানে শুধু ভিআইপি ও অসুস্থ্য বন্দিদের বেলায় দু’টি কম্বলের সঙ্গে একটি বালিশ দেয়া হলেও সাধারণ বন্দিদের কোন বালিশ দেয়া হয় না। তাদের শুধু তিনটি করে কম্বল দেয়া হয়। কিন্তু আগামি অর্থবছর থেকে সাধারণ বন্দিদের একটি কম্বল কমিয়ে দুইটি কম্বল ও একটি করে বালিশ দেয়া হবে।
বৃহস্পতিবার সকালে গাজীপুরের কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগারের প্যারেড গ্রাউন্ডে ৫১তম ব্যাচের কারারক্ষী বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ সমাপনী কুজকাওয়াজ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হয়ে যোগ দিতে এসে সাংবাদিকদের ওইসব কথা বলেন।
কারা মহাপরিদর্শক বলেন, ঔপনিবেশিক আমলের প্রিজন অ্যাক্ট-এর মাধ্যমে আমরা পরিচালিত হচ্ছিলাম। আমাদের মাঝে ঔপনিবেশিক মনোভাবও ছিল। আমরা তা ভুলে যেতে চাই। আমরা স্বাধীন বাংলাদেশের চেতনা ধারণ করে নতুনভাবে আমাদের কারাগারগুলো পরিচালনা করতে চাই। তারই ধারাবাহিকতায় দেশের কারাগারগুলোকে সংশোধনাগারে রূপান্তরিত করার প্রক্রিয়া চলছে। আমাদের প্রায় দুইশ বছরের পুরাতন যে প্রিজন অ্যাক্ট আছে আমাদের প্রধানমন্ত্রীর ঐকান্তিক ইচ্ছায় সেটাকে নতুন করে প্রণয়ন করার কাজ চলছে। আমরা আশা করছি এ বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে পার্লামেন্টের সভায় অনুমোদন লাভ করবে। একই সঙ্গে জেল কোডও সেভাবে সংশোধিত হবে। তাতে সেবার মান আরো অনেক বৃদ্ধি পাবে।