বিয়ানীবাজারের শালেশ্বর উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষামন্ত্রী নাহিদ ॥ এগিয়ে যেতে হলে শিক্ষা ও কর্মের বিকল্প নেই

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এমপি বলেছেন, বর্তমান সরকারে আমলে ১৬ কোটি মানুষের ৩২ কোটি হাতকে কাজে লাগানোর প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। আমাদের এগিয়ে যেতে হলে শিক্ষা ও কর্মের কোন বিকল্প নেই। তিনি বলেন, কর্মজীবনে নারী-পুরুষ প্রায় সমতা এসেছে। শিক্ষাক্ষেত্রে শতকরা হিসেবে মেয়ে ৫৩ ও ছেলে ৪৭ ভাগ অধ্যায়ন করছে। শিক্ষামন্ত্রী বলেন, বিয়ানীবাজার ও গোলাপগঞ্জের সবক’টি স্কুল, মাদ্রাসা ও কলেজে একাডেমিক ভবন নির্মাণসহ শিক্ষক স্বল্পতাদূর করা হয়েছে। একাধিক কলেজে অনার্স ও মাস্টার্স কোর্স চালু করা হয়েছে। যা অতীতে কেউ কল্পনাও করতে পারেনি।
শুক্রবার বিয়ানীবাজারের শালেশ্বর উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রায় দেড়কোটি টাকা ব্যয় সাপেক্ষে নবনির্মিত একাডেমিক ভবনের উদ্বোধন ও তিনতলা ঊর্ধ্বমুখী ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।
শিক্ষামন্ত্রী বলেন, সিলেট অঞ্চল অতীতে শিক্ষাদীক্ষায় পিছিয়ে ছিল। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের কর্মপ্রচেষ্টায় সিলেট এখন সবার সাথে পাল্লা দিয়ে সমতায় এসেছে। এখন আমাদের শিক্ষার মান বাড়াতে হবে। তিনি বলেন, বিএনপি-জোট সরকারের আমলে মাদ্রাসা শিক্ষার উন্নয়ন হয়নি। অথচ তারা কথায় কথায় আ’লীগকে ভোট দিলে ইসলাম চলে যাওয়ার প্রপাগান্ডা ছড়ায়। কিন্তু বাস্তবে আ’লীগ সরকার ইসলামের বন্ধু। এ সরকার ক্ষমতায় এলে মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদের সরকারি চাকুরিতে নিয়োগের ব্যবস্থা করে। একশ’বছরে যা হয়নি শেখ হাসিনার সরকার এদেশে ইসলামীক আরবি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করে আলীম-উলামাদের স্বপ্ন বাস্তবায়ন করেছে। শিক্ষামন্ত্রী বলেন, মানুষের মৌলিক অধিকার পূরণ ও আর্থসামাজিক উন্নয়নে সরকার কাজ করছে। এরপরও যা অসম্পূর্ণ রয়েছে তা আগামীতে ক্ষমতায় এসে শতভাগ পূরণ করা হবে। এজন্য আগামী নির্বাচনে নৌকায় ভোট দিয়ে গণতন্ত্র, উন্নয়ন ও উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত করতে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার জন্য শিক্ষামন্ত্রী সবার প্রতি আহ্বান জানান।
যুক্তরাষ্ট্রস্থ বিয়ানীবাজার সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সমিতি ইনক’র সভাপতি বিশিষ্ট সমাজসেবক ও শিক্ষানুরাগী মোস্তফা কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিয়ানীবাজার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান খান, বিয়ানীবাজার পৌরসভার মেয়র মো. আব্দুস শুকুর, বিয়ানীবাজার উপজেলা নির্বাহী অফিসার কাজী আরিফুর রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি আলহাজ মো. নাজিম উদ্দিন, কানাডা প্রবাসী মাহমুদ আলম, যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী হারুন রাজ্জাক, সংযুক্ত আরব আমিরাত প্রবাসী আব্দুল কাদির, বৈরাগীবাজার উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নজরুল হক, শালেশ্বর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক আওলাদ হোসেন, আ’লীগের সহ দপ্তর সম্পাদক দেওয়ান মাকসুদুল ইসলাম আউয়াল, কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা এডভোকেট মোহাম্মদ আব্বাছ উদ্দিন।
বিয়ানীবাজার উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা সাইদুল ইসলামের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন শেওলা ইউপি চেয়ারম্যান মো. জহুর উদ্দিন, শালেশ্বর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. মঈন উদ্দিন, উপজেলা আ’লীগের সদস্য আমির উদ্দিন ময়না, শেওলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. ফখরুল ইসলাম চৌধুরী, শালেশ্বর বঙ্গবন্ধু স্মৃতি পরিষদের সভাপতি শাহির আহমদ, আব্দুল বাতিন, মাজহারুল ইসলাম ফাহিম প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি