হবিগঞ্জে ইজতেমা ৪ জানুয়ারি

হবিগঞ্জ থেকে সংবাদদাতা :
হবিগঞ্জে স্থানীয়ভাবে অনুষ্ঠিত হচ্ছে তিন দিনব্যাপী ইজতেমা। এতে অংশ নিবেন প্রায় দুই লাখ মুসল্লি। ইজতেমায় দায়িত্ব পালন করবেন পাঁচ শতাধিক পুলিশ সদস্য, ছয়টি মেডিকেল টিমসহ সরকারি বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।
সদর উপজেলার রিচি ইউনিয়নের সুলতান মামদপুর মাঠে আগামী ৪ জানুয়ারি ফজরের নামাজের পর শুরু হয়ে ৬ জানুয়ারি সকাল ১১টায় আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হবে এ ইজতেমা।
স্থানীয় তাবলীগ জামাতের মুরুব্বী মশিউর রহমান শামীম জানান, শুধু হবিগঞ্জের মুসল্লিদের অংশগ্রহণের জন্য আয়োজন করা হয়েছে এ ইজতেমা। তবে বাংলাদেশ ও বিভিন্ন দেশের মুসল্লিরা এতে অংশ নিবেন। ধারণা করা হচ্ছে, দুই লাখ মুসল্লি এতে অংশ নিবেন।
তিনি আরও জানান, কেন্দ্রীয় মুরব্বীদের নির্দেশনায় চলছে আয়োজনের কাজ। প্যান্ডেল তৈরির কাজ অর্ধেক শেষ হয়েছে।
শামীম জানান, ইজতেমায় তাবলীগ জামাতের কেন্দ্রীয় মুরুব্বী মাওলানা জুবায়ের আহমেদসহ দেশি-বিদেশি অনেক মুরুব্বী বয়ান দিবেন এবং দাওয়াতের কার্যক্রম সম্পর্কে নির্দেশনা দিবেন।
হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইয়াছিনুল হক বাংলনিউজকে জানান, ইজতেমাকে কেন্দ্র করে চার স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। চারটি টিম সার্বক্ষণিকভাবে দায়িত্ব পালন করবে সেখানে। এছাড়া অসংখ্য মোবাইল টিম এবং সিভিল পুলিশের সদস্যরা ২৪ ঘণ্টা নিরাপত্তা নিশ্চিতে কাজ করবে ইজতেমা মাঠে।
হবিগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. সুচিন্ত চৌধুরী জানান, ইজতেমায় মুসল্লিদের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতে ছয়টি মেডিকেল টিম গঠন করা হয়েছে। প্রতিটি মেডিকেল টিমে একজন আবাসিক মেডিকেল অফিসারসহ ছয়জন করে স্বাস্থ্য সহকারী থাকবেন। মেডিকেল টিমগুলোকে ২৪ ঘণ্টা দায়িত্ব পালনের জন্য সময় ভাগ করে দেওয়া হয়েছে।