বড়লেখায় ১৩ জনের বিরুদ্ধে থানায় গোয়ালঘর পুড়ানোর মামলা

বড়লেখা থেকে সংবাদদাতা :
বড়লেখায় গোয়াল ঘর পুড়িয়ে ফেলার অভিযোগে প্রতিপক্ষের ১৩ ব্যক্তির বিরুদ্ধে থানায় মামলা হয়েছে। গত বুধবার রাতে উপজেলার গ্রামতলায় জয়গুন নেছার বাড়ীতে অগ্নিকান্ডের এ ঘটনায় থানায় তিনি প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে আড়াই লাখ টাকা ক্ষতি সাধনের অভিযোগ দিয়েছেন।
অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, গ্রামতলা গ্রামের জয়গুন নেছার বাড়ীতে বৃহস্পতিবার ভোর চারটার দিকে গোয়াল ঘরে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে দমকল বাহিনী ও পরিবারের লোকজন চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। এ ঘটনায় আব্দুস ছত্তারের স্ত্রী জয়গুন নেছা প্রতিপক্ষের নুরুল ইসলাম, নোমান উদ্দিন, কবির আহমদ, শরফ উদ্দিনসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে থানায় ঘর পুড়ানোর অভিযোগ দিয়েছেন।
ভুক্তভোগী জয়গুন নেছা (৬০) জানান, ৫ ডিসেম্বর প্রতিবেশী দেলোয়ারা বেগম, ছালেহা বেগম, ছলিম উদ্দিন গংরা মারধর করে। এ ঘটনায় তিনি থানায় মামলা দেন। এতে ক্ষীপ্ত হয়ে তারা রাতের আধারে আমার গোয়াল ঘর পুড়িয়ে দিয়েছে। সরেজমিনে গেলে এলাকার অনেকে জানান, জয়গুন নেছা ও নুরুল ইসলাম, সেলিম উদ্দিন গংদের সাথে মামলা মোকদ্দমা চলে আসছে। গোয়ালঘর পুড়ানোর ঘটনাটি রহস্যজনক বলে মনে হচ্ছে।
স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান সোয়েব আহমদ জানান, ঘটনা শুনে সকালে তিনি ওয়ার্ড মেম্বার আলাউদ্দিনকে ঘটনাস্থলে পাঠিয়ে জানতে পারেন পরিত্যক্ত একটি ঘর পুড়ে গেছে। অগ্নিকান্ডে যাদেরকে অভিযুক্ত করা হয়েছে তাদের সাথে জযগুন নেছার দীর্ঘদিন ধরে মামলা মোকদ্দমা চলছে।
থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ সহিদুর রহমান জানান, এসআই জাহাঙ্গির আলমকে অভিযোগের তদন্তের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।