সিসিক নির্বাচনে পুন:ভোট গ্রহণ ॥ রিপন-আজম খান-কণা-লাকী ও শাহনাজ বিজয়ী

সিন্টু রঞ্জন চন্দ :
সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ২৪ ও ২৭ নং ওয়ার্ডে ২ সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থী এবং সংরক্ষিত ৭, ৮ ও ৯ নং আসনে ৩ মহিলা কাউন্সিলর পদপ্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন। গতকাল শনিবার সিসিকের স্থগিতকৃত কেন্দ্রগুলোতে পুনরায় পুন:ভোটগ্রহণ গণনা শেষে রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আলীমুজ্জামান সাধারণ ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে এই ৫ প্রার্থীকে বিজয়ী ঘোষণা করেন।
জানা যায়, সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ২৪নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর হিসেবে টানা দ্বিতীয়বারের মতো নির্বাচিত হয়েছেন সোহেল আহমদ রিপন। গতকাল শনিবার ২৪নং ওয়ার্ডে স্থগিত হওয়া কেন্দ্র গাজী বুরহান উদ্দিন গরম দেওয়ান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পুনঃভোটে সোহেল আহমদ রিপন পেয়েছেন ৭৬৭ ভোট। ঠেলাগাড়ি প্রতিক নিয়ে তার প্রাপ্ত ভোট সংখ্যা ৩ হাজার ৪০৭ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী হুমায়ুন কবীর সুহিন ঘুড়ি প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ২ হাজার ৯০৬ ভোট। পুনঃভোটে তিনি পেয়েছেন ৪৮৫ ভোট। স্থগিত হওয়া গাজী বুরহান উদ্দিন গরম দেওয়ান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে শনিবার পুনরায় ভোট গ্রহণ হয়। এতে ৫০১ ভোটের ব্যবধানে জয় পেলেন রিপন। স্থগিত হওয়া এই কেন্দ্রে মোট ভোটার ছিলেন ২২২১ জন।
এদিকে, সিসিক নির্বাচনে ২৭ নং ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন আজম খান। গতকাল শনিবার পুনরায় ভোট গ্রহণ শেষে তিনি বিজয়ী হন। এর আগে তিনি ১১৫২ ভোটে এগিয়ে ছিলেন। হবিনন্দী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পুনঃভোটে তিনি ঘুড়ি প্রতীক নিয়ে ৫৫৬ ভোট পান। তিনি মোট ৩৮১০টি ভোট পেয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী আব্দুল জলিল নজরুল টিফিন ক্যারিয়ার প্রতীক নিয়ে শনিবার ৬২৭ ভোট পেয়েছেন। তার প্রাপ্ত ভোট সংখ্যা ২৭২৯। ২৭নং ওয়ার্ডে স্থগিত হওয়া কেন্দ্র হবিনন্দী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে মোট ভোটার ছিলেন ২৫৬৬ জন।
নির্বাচনে সিসিকের সংরক্ষিত ৭নং ওয়ার্ডে মহিলা কাউন্সিলর পদে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন নাজনীন আক্তার কণা। জিপ গাড়ি প্রতীক নিয়ে তিনি পেয়েছেন ৩ হাজার ৩২৫ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নার্গিস সুলতানা চশমা প্রতিকে পেয়েছেন এক হাজার ৯৭২ ভোট। সাধারণ ১৯, ২০ ও ২১নং ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত সংরক্ষিত ৭নং ওয়ার্ডের ১৪টি কেন্দ্রে গতকাল শনিবার পুনরায় ভোট গ্রহণ হয়। এতে ১৩৫৩ ভোটে নার্গিসের চেয়ে এগিয়ে থেকে জয় পান কণা। গত ৩০ জুলাইয়ের ভোটে নাজনীন আক্তার কণা (জিপ গাড়ি প্রতীক) ও নার্গিস সুলতানা (চশমা প্রতীক) সমান ৪১৫৫ ভোট পেয়েছিলেন। ফলে এ ওয়ার্ডে পুনরায় ভোট গ্রহণের সিদ্ধান্ত নেয় নির্বাচন কমিশন। সংরক্ষিত ৭নং ওয়ার্ডে মোট ভোটার ছিলেন ৩৪ হাজার ১২৩ জন। কিন্তু গতকাল শনিবার নির্বাচনে ভোট পড়েছে খুবই কম।
এদিকে সংরক্ষিত ৮নং ওয়ার্ডে মহিলা কাউন্সিলর পদে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন রেবেকা আক্তার লাকী। জিপ গাড়ি প্রতীক নিয়ে তিনি পেয়েছেন ৬ হাজার ৫৭৭ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সালেহা কবীর শেপী চশমা প্রতীকে পেয়েছেন ৪ হাজার ৫২৭ ভোট। সাধারণ ২২, ২৩ ও ২৪নং ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত সংরক্ষিত ৮নং ওয়ার্ডের গাজী বুরহান উদ্দিন গরম দেওয়ান সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে গতকাল শনিবার পুনরায় ভোট গ্রহণ হয়। এতে রেবেকা আক্তার লাকী পেয়েছেন ৬০০ ভোট, সালেহা কবীর শেপী পেয়েছেন ৫৯২ ভোট, মোছাম্মৎ হেনা বেগম পেয়েছেন ১৭৬ ভোট, জোৎস্না বেগম পেয়েছেন ৪৭ ভোট এবং রিনা বেগম পেয়েছেন ২৮ ভোট। এই কেন্দ্রে বাতিল হয়েছে ৭১টি ভোট। সংরক্ষিত ৮ং ওয়ার্ডে মোট ভোটার ছিলেন ২৯ হাজার ৯০৬ জন।
অপরদিকে সিসিক নির্বাচনে সংরক্ষিত ৯নং ওয়ার্ডে মহিলা কাউন্সিলর পদে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন রোকসানা বেগম শাহনাজ। চশমা প্রতীক নিয়ে তিনি পেয়েছেন ৮ হাজার ৭০২ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছামিরুন নেছা গ্লাস প্রতিকে পেয়েছেন ৫ হাজার ৮৯১ ভোট। সাধারণ ২৫, ২৬ ও ২৭নং ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত সংরক্ষিত ৯নং ওয়ার্ডের হবিনন্দি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে গতকাল শনিবার পুনরায় ভোট গ্রহণ হয়। এতে রোকসানা বেগম শাহনাজ পেয়েছেন ৭৩২ ভোট ও ছামিরুন নেছা পেয়েছন ৪১৬ ভোট এবং আছমা বেগম পেয়েছেন ২৭৭ ভোট। এই কেন্দ্রে বাতিল হয়েছে ৩৬ টি ভোট। সংরক্ষিত ৯নং ওয়ার্ডে মোট ভোটার ছিলেন ৩৮ হাজার ৬২৮ জন।