ওসমানীনগরে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের, গ্রেফতার ১

ওসমানীনগর থেকে সংবাদদাতা :
ওসমানীনগরে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের শিকার ২২ বছর বয়সী এক তরুণীর দায়ের করা মামলায় অভিযুক্ত মাসুদ রানা নামের এক ব্যক্তিকে (৪০) সোমবার দিনগত গভীর রাতে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তিনি উপজেলার গোয়ালাবাজার ইউপির মোতিয়ারগাঁও গ্রামের কিছমত উল্লার পুত্র। মঙ্গলবার দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করে করা হয়েছে।
মামলা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার গোয়ালাবাজার ইউপির মোতিয়ার গাঁও প্রকাশিত ভাগলপুর গ্রামের লাইলী বেগমের স্বামী পরিত্যক্ত পালিত মেয়েকে একই গ্রামের মাসুদ রানা বিয়ের প্রলোভনে একাধিকবার ধর্ষণ করে। মেয়েটি মাসুদ রানাকে বিয়ের জন্য চাপ দিলে মাসুদ রানা বিয়ের ভূয়া কাবিননামা তৈরী করে মাসখানেক তার সাথে মেলামেশা করে। ৫ এপ্রিল মাসুদ রানা মেয়েটির বাড়ীতে গিয়ে তাকে বিয়ে করেনি বলে তার সাথে যোগাযোগ না করতে এবং বিষয়টি কাউকে না বলতে হুমকি দেন। মেয়েটি কাবিননামা যাচাইবাচাই করে জানতে পারে এটি ভূয়া। এরপর ভুক্তভোগী মেয়েটি বাদি হয়ে গত সোমাবার রাতে ওসমানীনগর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-০৬। ওসমানীনগর থানার ওসি মোম্মদ সহিদ উল্যা মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, মামলায় অভিযুক্ত মাসুদ রানাকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।