ডিসেম্বরের ৩য় সপ্তাহে সিলেট আসতে পারেন খালেদা জিয়া

স্টাফ রিপোর্টার :
আগামী নির্বাচন, দল পুনর্গঠন ও রাজপথের কর্মসূচি- এ তিন ইস্যুকে সামনে রেখে ডিসেম্বরের ৩য় সপ্তাহে সড়ক পথে সিলেট আসতে পারেন বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া। সিলেট সফরে এসে তিনি প্রথমে হযরত শাহজালাল (রহ.) এবং হযরত শাহপরাণ (রহ.) মাজার জিয়ারত করবেন। আগামী জাতীয় সংসদ ও সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনসহ বেশ কয়েকটি এজেন্ডা সামনে রেখে বিভাগীয় শহরে সড়কপথে সফরের পরিকল্পনা রয়েছে খালেদা জিয়ার। এ বিষয়টি বিএনপি জানিয়েছেন চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা খন্দকার মুক্তাদির।
যুক্তরাজ্য থেকে ফিরে খালেদা জিয়া রোহিঙ্গাদের দেখতে কক্সবাজার সফর করেন। সড়কপথে তার এ সফরে পথে পথে বিএনপি নেতাকর্মীদের ঢল নেমেছিল। এরই ধারাবাহিকতায় কক্সবাজারের মতো সিলেটেও নেতাকর্মীদের উজ্জ্বীবিত রাখতে সড়ক পথেই সফরের পরিকল্পনা রয়েছে তার। এ বিষয়ে দল থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানানো হয়নি। তবে সম্প্রতি সিলেট মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসাইন এবং সাধারণ সম্পাদক বদরুজ্জামান সেলিম খালেদা জিয়ার সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন এবং সিলেট সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন।
মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসাইন জানান, আমরা ম্যাডামকে সিলেট সফরের আমন্ত্রণ জানালে নেত্রী ইতিবাচক মনোভাব ব্যক্ত করেছেন। তিনি আরো জানান, সিলেট বিএনপি পরিবার দলীয় চেয়ারপার্সনকে সিলেটে বরণ করতে প্রস্তুত রয়েছে।
নির্দিষ্ট দিনক্ষণ ঠিক না হলেও এ মাসেই অর্থাৎ ডিসেম্বরেই খালেদা জিয়ার সিলেট সফর প্রায় নিশ্চিত বলে বিএনপির একাধিক কেন্দ্রীয় সুত্র জানিয়েছে। এ বিষয়ে বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা খন্দকার মুক্তাদির জানান, নেত্রী রাজনৈতিক সাংগঠনিক সফরে খুব শীঘ্রই সিলেট আসবেন। রাজনৈতিক একটা পরিস্থিতি তৈরি করার জন্যই নেত্রীর এ সফর। তিনি আরো জানান, দলীয়ভাবে এখনো সিলেট সফরের দিন-তারিখ ঠিক হয়নি। তবে ডিসেম্বরের ৩য় সপ্তাহে হওয়ার সম্ভবনাই বেশি। খালেদা জিয়া সিলেট সফরে এলে সাম্প্রতিক সময়ে সিলেট অঞ্চলের বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত বিভিন্ন এলাকাগুলো পরিদর্শনে যাওয়ার সম্ভবনা রয়েছে বলে জানান তিনি।
এদিকে খালেদা জিয়া সিলেট সফরে আসছেন এমন গুঞ্জনে সিলেটের বিএনপি, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল এবং ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা ইতিমধ্যেই নেত্রীকে বরণ করতে প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছেন বলে সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপি সূত্রে জানা গেছে।