হাউসের ঘর

0
12

লুবনা জেরিন সীমা

দু’চোখে স্বপ্ন নিয়ে
হাউসের ঘর বান্ধিলাম
খড় কুটা দিয়া
একটুখানি ভালোর জন্য
প্রতিদিন যতœ করে
সন্ধ্যা প্রদীপ জ্বালি।

সুখের আশায় চাইয়া থাকি
বন্ধুর মুখের দিকে
রসের পিরীতে ভরে দিলাম
বন্ধুর অন্তর দেহে।
তবু আমার বন্ধুর মন বসেনা
ঘরের নিঝুম কোণে
এথায় সেথায় তাকায় হেথায়
লম্ফঝম্প মারি
ফুঁড়ুত ফাঁড়ুত ঘুরে শুধু মন ভ্রমরার মত
ফুলে ফুলে মধু খেয়ে করে উড়ুউড়ু।

এক বেলা দেখা মেলে
অন্য বেলা খোঁটে খাটে
দেয় না ধরা মোটে
দিবা কিংবা রাতে।
হায়রে আমার পোড়া কপাল
অশান্তির আগুনে পোড়ে
সুখের আশায় ঘুরলাম আমি
আমার বন্ধুর পিছে
সুখ যে আমার সতীন কোটা
বুঝলাম এতদিনে।

সুখের চিহ্ন দেখছিনাকো
আশার আলোয় উড়ছে বালি
দুঃখ, কষ্ট, নিত্য সঙ্গী
সর্বদাই ধায় আমার পিছু।