সিলেট প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন ॥ ডিপ্লোমা মেডিকেল শিক্ষার্থীদের চার দফা দাবি বাস্তবায়নের আহবান

0
6

স্টাফ রিপোর্টার :
বঙ্গবন্ধু ডিপ্লোমা মেডিকেল স্টুডেন্ট এসোসিয়েশন তাদের চার দফা দাবি বাস্তবায়নের আহবান জানিয়েছে। দাবি বাস্তবায়ন না হলে আগামী ৬ মে থেকে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হবে। গতকাল রবিবার সিলেট প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে তারা চার দফা দাবি উত্থাপন করেন। দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রাণালয়ের সিদ্ধান্ত মোতাবেক মেডিকেল এডুকেশন বোর্ড অব বাংলাদেশ গঠন, বঙ্গবন্ধুর ৫ম বার্ষিকী পরিকল্পনা মোতাবেক ম্যাট্স শিক্ষার্থীদের উচ্চ শিক্ষার অধিকার নিশ্চিত করা, কমিউনিটি ক্লিনিকে সরকারিভাবে ১০ম গ্রেডে নিয়োগ এবং ইন্টার্নি ভাতা প্রদান করা।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে এসোসিয়েশনের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মো. কিবরিয়া বলেন, দেশে ৮টি সরকারি ম্যাটস এবং প্রায় ২০৯টি বেসরকারি ম্যাটস ডিপ্লোমা চিকিৎসকদের ডিএমএফ কোর্স পরিচালনা করে আসছে। এসব প্রতিষ্ঠানে ডিপ্লোমা শিক্ষার্থীদের সংখ্যা প্রায় লক্ষাধিক। সরকারের হিসেব অনুযায়ী প্রায় ১২ হাজার ডিপ্লোমা চিকিৎসক বিভিন্ন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, ইউনিয়ন উপ স্বাস্থ্য কেন্দ্র ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রে কর্মরত আছেন। পাশাপাশি প্রায় ২০ হাজার ডিপ্লোমা চিকিৎসক বেসরকাভিাবে কর্মরত আছেন। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্ত মোতাবেক স্টেট মেডিকেল ফ্যাকাল্টি নামের পরিবর্তন করে মেডিকেল এডুকেশন বোর্ড অব বাংলাদেশ নামে স্বতন্ত্র একটি বোর্ড গঠন করার সিদ্ধান্ত হয়েছিল। কিন্তু তা পরিবর্তন করে সকল ম্যাটস শিক্ষার্থীদের প্রাণের দাবিকে উপেক্ষা করে বাংলাদেশ এলাইড হেলথ প্রফেশনাল শিক্ষাবোর্ড নামে বোর্ডের খসড়া অনুমোদন দেয়া হয়। এর প্রেক্ষিতে সারাদেশে ম্যাটস শিক্ষার্থীদের মধ্যে ক্ষোভ ও হতাশা বিরাজ করে।
তিনি বলেন, বর্তমানে নতুন পাশ করা আরো প্রায় ২৫ হাজার ডিপ্লোমা চিকিৎসক বেকার রয়েছেন।তাদেরকে প্রায় ১৮ হাজার কমিউনিটি ক্লিনিকে পদায়ন করা হলে দেশের চিকিৎসা সেবায় বৈপ্লবিক উন্নয়ন ঘটবে এবং বেকারত্ব দূর হবে। ম্যাটস শিক্ষার্থীদের উচ্চ শিক্ষার সুযোগ দিলে তারা স্বাস্থ্যক্ষেত্রে অসামান্য অবদান রাখতে পারবেন। ডিএমএফ কোর্স শেষ করার পর ইন্টার্নি করা কালে ভাতা প্রদান করলে তারা উপকৃত হবেন। সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখিত দাবিগুলো দ্রুত বাস্তবায়নের জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানানো হয়। আগামী ৫ মের মধ্যে দাবি বাস্তবায়ন না হলে ৬ মে থেকে সারাদেশে প্রতিটি জেলায় ছাত্র ধর্মঘট কর্মসূচি পালন করা হবে বলে হুসিয়ারি উচ্চারণ করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন এসোসিয়েশনের সিলেট মহানগর সভাপতি সাইদুর রহমান রায়হান, সাধারণ সম্পাদক সুহেল আহমদ, সিলেট জেলা বিডিএমএ সভাপতি ডা. পবিত্র রঞ্জন বনিক, প্রধান উপদেষ্টা ডা. বিশ্বভূষণ পাল, ডা. শিব্বির আহমদ, ডা. জুনায়েদ আহমদ, ডা. মো. আল সাফওয়ান প্রমুখ।