বাউল কল্যাণ সমিতি সিলেট বিভাগের সম্মেলনে অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ॥ বাংলা সংস্কৃতির স্বীকৃত শিল্প হচ্ছে বাউল গান

0
65
বাউল কল্যাণ সমিতি সিলেট বিভাগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছেন অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান এমপি।
বাউল কল্যাণ সমিতি সিলেট বিভাগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছেন অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান এমপি।

অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম.এ মান্নান এমপি বলেছেন, দেশ ও নাগরিকদের উন্নয়নে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। এদেশের প্রতিটি নাগরিক নিজ গুণে, নিজ সংস্কৃতি ও নিজ প্রচেষ্টায় যেন মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেই লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছেন। বাংলাদেশ গোটা একটি পরিবার। এখানে সবাই মিলে সম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রেখে জীবন যাপন করছে। বাংলাদেশে বাস করবে আর বাউল চিনবে না এটা হয়না উল্লেখ করে এম.এ মান্নান বলেন, বাংলা সংস্কৃতির স্বীকৃত শিল্প হচ্ছে বাউল গান। বাউল গান শুধু দেশেই স্বীকৃত নয়, বিদেশের মাটিতেও এ গানের জনপ্রিয়তা রয়েছে। বাউল গান সহজ ভাষায় মনোমুগ্ধকর সুরে গাওয়া হয়। বাউল গান যেমন জীবন দর্শনে সম্পর্কিত তেমনী সুর সম্মৃদ্ধ। যার কারণে বাউল গানের প্রতি মানুষ আকৃষ্ট। বাউল গান এদেশের মাটি ও মানুষের সাথে মিশে আছে। বাউল গানে প্রাণে ঢেউ তুলে। তিনি বাউলদের উন্নয়নে তার পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগিতার আশ^াস প্রদান করেন।
অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী গতকাল ২৭ অক্টোবর শনিবার বিকালে সিলেট জেলা পরিষদ মিলনায়তনে বাউল কল্যাণ সমিতি সিলেট বিভাগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।
বাউল কল্যাণ সমিতি সিলেট বিভাগের আহবায়ক কামাল উদ্দিন রাসেলের সভাপতিত্বে ও সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সদস্য সচিব বাউল শিল্পী মুক্তার মাহমুদ এর পরিচালনায় সম্মেলনর ২য় অধিবেশনে প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন দৈনিক সিলেটের ডাকের নির্বাহী সম্পাদক আবদুল হামিদ মানিক। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেট প্রেসক্লাবের সভাপতি একরামুল কবির, ইউকে-বাংলাদেশ ডেভোলাপম্যান্ট ইনিশিয়েটিভ’র চেয়ারম্যান আব্দুর রব মল্লিক।
বাউল কল্যাণ সমিতি সিলেট বিভাগের সদস্য সূর্য্য লাল দাশের স্বাগত বক্তব্যের মধ্যে সূচিত অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম লিলু, সমিতির সদস্য বাউল বিরহী লাল মিয়া, বাউল রানু সরকার, বাউল উদাসী মুজিব ও মিনারা বেগম।
সম্মেলনে প্রবীন দশজন বাউলকে ক্রেস্ট ও সম্মাননা প্রদান করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম.এ মান্নান সহ অতিথিবৃন্দ।
এর আগে বেলা ১১টায় বাউল কল্যাণ সমিতি সিলেট বিভাগ এর উদ্যোগে নগরীতে একটি র‌্যালি বের হয়। র‌্যালিটি নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জেলা পরিষদের হল রুমে সম্মেলনের ১ম অধিবেশনে যোগ দেয়।
বাউল কল্যাণ সমিতি সিলেট বিভাগের আহবায়ক কামাল উদ্দিন রাসেলের সভাপতিত্বে ও সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সদস্য সচিব বাউল শিল্পী মুক্তার মাহমুদ এর পরিচালনায় সম্মেলনর ১ম অধিবেশনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ইউকে-বাংলাদেশ ডেভোলাপম্যান্ট ইনিশিয়েটিভ’র চেয়ারম্যান আব্দুর রব মল্লিক, দৈনিক উত্তর পূর্বের প্রধান সম্পাদক আজিজ আহমদ সেলিম। অনুষ্ঠানে সিলেট বিভাগের নবীন ও প্রবীণ গীতিকার ও বাউল শিল্পীগণ বক্তব্য রাখেন।
সম্মেলনে প্রয়াত শিল্পীদের স্মরণে সমিতির পক্ষ থেকে শোক প্রস্তাব করে, ১ মিনিট দাঁড়িয়ে নিরবতা পালন করা হয়। বিজ্ঞপ্তি