দোয়ারাবাজারে মাদরাসার আসবাবপত্র ভাংচুর

0
8

দোয়ারাবাজার থেকে সংবাদদাতা :
দোয়ারাবাজারে নিজেদের পক্ষে পুলিশের কাছে সাক্ষী না দেয়ায় এক মাদরাসার আসবাবপত্র ভাংচুরের ঘচনা ঘটেছে। সম্প্রতি উপজেলার সদর ইউনিয়নের টেবলাই তা’লীমুল কুরআন হাফিজিয়া মাদরাসায় এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা অভিযোগ করে বলেছেন, বুরহান উদ্দিন হত্যা মামলার আসামী পক্ষ তাদের পক্ষের টেবলাই গ্রামের আলকাছ মিয়া, সুজাত মিয়া, হাজী নুরুল ইসলাম,সালমান মিয়া সহ মাদরাসার মুহতামিম নুরুল হক সাক্ষী না দেয়ায় গত শনিবার দিবাগত রাতে মাদরাসা ঘরের বিদ্যুতের লাইন, পানির টেপ ও আসবাবপত্র ভাংচুর করেন।এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে সর্বস্তরের মানুষ স্থানীয় টেবলাই বাজারে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা করেছেন। অবিলম্বে ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী। শনিবার ওই ঘটনায় পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন এবং আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে সবাইকে শান্ত থাকার নির্দেশ দিয়েছে পুলিশ।
স্থানীয় টেবলাই বাজারের ব্যবসায়ী আব্দুল ফাজিল, হাজী আব্দুল হাসিম সহ এলকাবাসী জানিয়েছেন, দুই পক্ষের মধ্যে হত্যা কান্ডের ঘটনায় মামলা মোকদ্দমা চলে আসছে। মাদরাসার শিক্ষক এক পক্ষের পক্ষে সাক্ষী না দেয়া এমন ঘটনা ঘটিয়ে ক্ষয়ক্ষতি সাধন করা হয়েছে। আমরা এর বিচার ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের ক্ষয়ক্ষতি চাই।
জানতে চাইলে দোয়ারাবাজার থানার ওসি সুশীল রঞ্জন বলেন, ঘটনাকে কেন্দ্র করে ওই এলাকায় পুলিশ টহল বৃদ্ধি করা হয়েছে। তবে খতিয়ে দেখে ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনাননুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।