ছাতকে রামদার আঘাতে যুবকের আঙ্গুল কর্তন

0
30

ছাতক থেকে সংবাদদাতা :
ছাতকের পল্লীতে সুজন মিয়া (৩০) নামের এক যুবককে রামদা দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেছে প্রতিপক্ষরা। রামদার উপর্যুপরি আঘাতে তার মাথা ও পিঠ ছাড়াও হাতের তিনটি আঙ্গুল প্রায় বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলার দোলারবাজার ইউনিয়নের উত্তর কুর্শী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহত সুজন মিয়া উত্তর কুর্শী গ্রামের তকম উল্লাহর ছেলে।
সুজনের ভাই আবদুস শুকুর জানান, সন্ধ্যায় বাড়ি থেকে স্থানীয় মোহাম্মদগঞ্জ বাজারে যাওয়ার পথে একই গ্রামের আবদুস সোবহান, জামিল, আবদুল খালিক, রাজাই মিয়া, ভুলু ও আবদুস ছালামসহ কয়েকজন মিলে তার উপর হামলা করে। প্রাণে বাঁচতে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করলে হামলাকারিরা সুজনকে ধাওয়া করে রামদা দিয়ে কুপিয়ে আহত করে। রামদার আঘাতে ৩টি আগুল প্রায় বিচ্ছিন্ন ছাড়াও মাথা ও পিঠে একাধিক স্থানে মারাত্মক আঘাত রয়েছে। তিনি আরও জানান, সম্প্রতি শিশুদের ফুটবল খেলা নিয়ে ঝগড়াকে কেন্দ্র করে তাদের সঙ্গে বিরোধ দেখা দেয়। সোমবার ছামির নামে এক শিশুকে তারা মারধর করে। ওই ঘটনার প্রতিবাদ করলে মঙ্গলবার উল্টো আবার হামলা করে। এ ঘটনায় তিনি থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন। এ ব্যাপারে ছাতক থানার ওসি আতিকুর রহমান জানিয়েছেন, হামলার ব্যাপারে তাকে কেউ অবগত করেনি। অভিযোগ আসলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।