আজমীর শরীফ ভেঙ্গে মন্দির বানানোর হুমকির প্রতিবাদ ও নিন্দা

0
26

সপ্তম হিজরী শতকের মোজাদ্দীদ ভারত বর্ষে ইসলামের বীজ রোপণকারী সুলতানুল হিন্দ নামে সারা বিশ্ব পরিচিত ভারতের আজমীর শরীফে অবস্থিত খাজা মঈনুদ্দিন হাসান চিশতী আজমেরী সানজেরী (রহঃ)’র ঐতিহাসিক দরগাহকে বা মাজার শরীফকে হিন্দু মন্দির বলে এবার দাবী করেছে শিবসেনা হিন্দুস্থান নামের একটি চরম পন্থী হিন্দুত্ববাদী সংগঠন।
শিবসেনা হিন্দুস্থান সংগঠনের পক্ষ থেকে সম্প্রতি খাজা গরীবে নেওয়াজের দরগাহ শরীফকে মন্দির বলে দাবি করা হয়। ইসলাম বিদ্বেষী হিন্দুত্ববাদী সংগঠনটি এক বিবৃতিতে দরগাহ শরীফকে ভেঙে ফেলে সেখানে মন্দির তৈরি করা উচিত বলে মন্তব্য করেছে।
ভারতের আজমীর শরীফে অবস্থিত খাজা গরিব নওয়াজের দরগাহ শরীফ গত ৮০০ বছর ধরে জাতি ধর্ম নির্বিশেষে সকলের কাছেই শ্রদ্ধার স্থান বলে বিবেচিত হয়ে আসছে। এ ধরনের বক্তব্যে তীব্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে বলেন, হযরত শাহজালাল (রহ.) ৩৬০ আউলিয়া লতিফিয়া হাফিজিয়া মাদরাসা উপশহর সিলেটের প্রিন্সিপাল হাফিজ মোঃ মাছুম আহমদ দুধরচকী। তিনি বলেন, হাজার বছরের পুরোনো আজমীর শরীফ দরগাহ সম্পর্কে এক ইসলাম বিদ্বেষী হিন্দুত্ববাদী সংগঠন এই প্রথম এ ধরণের দাবী করেছে। এর আগে তাজ মহল সম্পর্কেও তারা এ রকম দাবী করেছিল যে সেখানে মন্দির আছে। দুধরচকী ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে জোর দাবী জানিয়ে বলেন, দেশের সম্প্রতি ও শৃঙ্খলা রক্ষার স্বার্থে এ ধরনের সংগঠনের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করা এবং প্রয়োজনে চরমপন্থী সংগঠনগুলোকে নিষিদ্ধ করা। বিজ্ঞপ্তি