সেনা সদস্য ছিনতাইর শিকার ॥ পুলিশের বিশেষ অভিযানে ৫ ছিনতাইকারী গ্রেফতার ॥ ২টি মোটরসাইকেল, ছোরা ও নগদ টাকা উদ্ধার

0
10

স্টাফ রিপোর্টার :
শাহপরাণ থানার বিভিন্ন স্থান থেকে পুলিশ বিশেষ অভিযান চালিয়ে কুখ্যাত ৫ ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে মহানগর পুলিশের বিভিন্ন থানায় ছিনতাই মামলাসহ একাধিক মামলা রয়েছে। গতকাল সকালে পুলিশ তাদেরকে গ্রেফতার করে। এসময় পুলিশ গ্রেফতারকৃতদের কাছ থেকে একটি কালো রংয়ের পালসার ও ছাই রংয়ের আরও একটি এ্যাপাচি মোটরসাইকেল, ছোরা এবং নগদ সাড়ে ২৭ হাজার টাকার উদ্ধার করে।
গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে- ময়মনসিংহ জেলার ইশ^রগঞ্জ থানার চরশিহারী শাইল (বড়বাড়ী) গ্রামের মৃত মো: আলীর পুত্র বর্তমানে ইসলামপুরে বাসিন্দা নাসির উদ্দিন (৩৫)। সে গোলাপগঞ্জ থানার একটি মামলায় ১০ বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামী। এছাড়াও তার বিরুদ্ধে দক্ষিণ সুরমা থানায় আরও একটি মামলা রয়েছে। এছাড়াও গ্রেফতারকৃত শফিকুল ইসলাম উরফে কালা শফিক কোম্পানীগঞ্জ থানার ২নং পূর্ব ইসলামপুরের নতুন জীবনপুর গ্রামের বাসিন্দা। তার বিরুদ্ধে দক্ষিণ সুরমা ১টি ও শাহপরাণ থানায় আরও ২টি মামলা রয়েছে। মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া থানার মনরাজ মাহমুদপুর গ্রামের মৃত আজমান আহমদের পুত্র রাহেল আহমদ (২৭)। তার বিরুদ্ধে কোতোয়ালি থানায় একটি মামলা রয়েছে। এছাড়াও গ্রেফতারকৃত শাহপরাণ থানার খাদিমপাড়ার কল্লগ্রামের আব্দুর রশীদের পুত্র মুক্তার হোসেন (৩৫)। মুক্তারের বিরুদ্ধে শাহপরাণ ও কোতোয়ালি থানায় পৃথক দুটি মামলা রয়েছে। মেজরটিলা পশ্চিম ভাটপাড়া এলাকার হাবিবুর রহমান কালা মিয়ার পুত্র দিলোয়ার হোসেন আলম (৩৫)। তার বিরুদ্ধে শাহপরাণ থানায় একটি মামলা রয়েছে বলে পুলিশ জানায়।
মহানগর পুলিশ কমিশনারের নির্দেশনায় অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (অপরাধ) দক্ষিণ বিভাগের বিশেষ জ্যোর্তিময় সরকারের নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনা করেন শাহপরাণ থানার সহকারী পুলিশ কমিশনার ইসমাইল পিপিএম (বার) ও থানার অফিসার ইনচার্জ আখতার হোসেন। এছাড়াও অভিযানে ছিলেন শাহপরাণ থানার ওসি (তদন্ত) গিয়াস উদ্দিন মজুমদার, এসআই প্রদীপ সরকার, এসআই রিপটন, এসআই রাজীব, এসআই শাখাওয়াত, এএসআই হেলাল, এএসআই বোরহান।
পুলিশ সূত্র জানায়, গত ৭ মে বিকেলে শাহপরাণ থানার মুরাদপুর এলাকায় ছিনতাইয়ের শিকার হন নৌবাহিনীর ল্যান্স কর্পোরাল ময়নুল ইসলাম (৩২)। তিনি নগরীর লালদীঘিরপার আল আরাফাহ ইসলামী ব্যাংক থেকে ১লাখ ৯০ হাজার টাকা উত্তোলন করে সিএনজি অটোরিক্সা যোগে বাসায় ফিরছিলেন। তাকে বহনকারী অটোরিক্সাটি মুরাদপুর এলাকায় পৌছালে ২টি মোটরসাইকেল যোগে ৫ জন ছিনতাইকারী তাকে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ব্যাগে রক্ষিত টাকাগুলো ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় তিনি বাদী হয়ে শাহপরাণ থানায় দ্রুত বিচার আইনে ঘটনার দিন একটি মামলা দায়ের করেন। সেই মামলা দায়েরের প্রেক্ষিতে পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শাহপরান থানায় এলাকায় পৃথক বিশেষ অভিযান চালিয়ে কুখ্যাত উল্লেখিত ৫ ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করে।
এ বিষয়ে মহানগর পুলিশের দক্ষিণ বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (অপরাধ) জ্যোর্তিময় সরকার বলেন, গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে মহানগর পুলিশের বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। তারা সিলেটের কুখ্যাত ছিনতাইকারী। বিভিন্ন অপরাধ কর্মকান্ড ঘটিয়ে তারা আত্ম-গোপনে চলে যায়। পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে তাদেরকে গ্রেফতার করেছে। তাদের অন্যান্য সহযোগীদেরকে গ্রেফতার করার জন্য পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।