সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন ॥ প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ, প্রচার প্রচারণা শুরু ॥ মাজার জিয়ারতের মধ্য দিয়ে মেয়র প্রার্থী কামরান, আরিফ ও সেলিমের নির্বাচনী প্রচারণা শুরু

0
5

স্টাফ রিপোর্টার :
সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র, কাউন্সিলর, সংরক্ষিত নারী আসনের প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ সম্পন্ন হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সকালে এই প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হয়। প্রতীক পেয়ে নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক প্রচার প্রচারণায় নেমে পড়েন প্রার্থীরা।
আগামী ৩০ জুলাই অনুষ্ঠিতব্য সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে সাবেক মেয়র ও সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বদর উদ্দিন আহমদ কামরান লড়বেন দলীয় প্রতীক নৌকা নিয়ে। বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য ও সদ্য সাবেক সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী লড়বেন ধানের শীষ প্রতীকে। নাগরিক কমিটি মনোনীত প্রার্থী বদরুজ্জামান সেলিম পেয়েছেন বাসগাড়ী প্রতীক, মহানগর জামায়াতের আমির এহসানুল মাহবুব জুবায়ের পেয়েছেন টেবিল ঘড়ি, ইসলামী আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সদস্য ডা. মোয়াজ্জেম হোসেন পেয়েছেন হাতপাখা প্রতীক, সিপিবি-বাসদ মনোনীত প্রার্থী আবু জাফর মই ও স্বতন্ত্র প্রার্থী এহসানুল হক তাহের পেয়েছেন হরিণ প্রতীক। সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আলীমুজ্জামান মেয়র পদের প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
মাজার জিয়ারতের মধ্য দিয়ে ৩ মেয়র প্রার্থীর নির্বাচনী প্রচারণা শুরু: ওলিকূল শিরোমণি হযরত শাহজালাল (রহ.) মাজার জিয়ারত করে দরগাহ এলাকা থেকে আনুষ্ঠানিক নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেছেন সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরান, অরিফুল হক চৌধুরী ও বদরুজ্জামান সেলিম। গতকাল মঙ্গলবার বেলা ১১ টা থেকে তারা মাজার প্রাঙ্গন ও প্রধান সড়কের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে গন-সংযোগ করেন।
আওয়ামীলীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী বদরউদ্দিন আহমদ কামরান বলেছেন- নৌকা বঙ্গবন্ধুর প্রতীক, স্বাধীনতার প্রতীক, জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতীক। আগামী ৩০ জুলাই নির্বাচনে উন্নয়নের প্রতীক হিসেবে নৌকায় ভোট দিয়ে জনগন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করবেন। তিনি বলেন- সিলেট হচ্ছে আত্মাধিক নগরী। এই নগরী রাজনৈতিক সম্প্রীতি ও ঐক্যের বন্ধন রয়েছে। এবার সিলেটের মানুষ নৌকার পক্ষে গণজোয়ার তুলেছেন। সুতরাং সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের মাধ্যমের এবার আমরা বিজয়ী হবো ইনশাআল্লাহ। এ সময় কামরানের সাথে জেলা মহানগর আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।
এছাড়া দুপুর ১২টার দিকে মাজার জিয়ারতে যান বিএনপি মনোনীত মেয়ার প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী। তিনি মাজার জিয়ারত শেষে মাজার প্রাঙ্গণে গণসংযোগ করেন। শাহজালাল মাজারে জিয়ারত ও মোনাজাত শেষে স্থানীয় ১ নং ওয়ার্ডের ভোটারদের কাছে ধানের শীষ প্রতীকে ভোট চান আরিফ। এ সময় তার সাথে সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপির নেতৃবৃন্দ ও কর্মী-সমর্থকরা উপস্থিত ছিলেন।
এদিকে দরগাহ এলাকায় বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী ও নাগরিক কমিটি’র প্রার্থী মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক বদরুজ্জামান সেলিমকে গণসংযোগ করতে দেখা যায়।