বিশ্বনাথে বিদ্যুতের লাইন টানা নিয়ে দু’পক্ষ মুখোমুখি, স্মারকলিপি পেশ

0
5

বিশ্বনাথ থেকে সংবাদদাতা :
বিশ্বনাথে জোরপূর্বক বিদ্যুৎ লাইন টানায় গনাইঘর গ্রামের দু’পক্ষ মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছেন। প্রতিপক্ষ প্রভাবশালী হওয়ায় আবেদন করার পরও বিশ্বনাথ পল্লী বিদ্যুৎ জোনাল অফিসের কর্মকর্তারা মিটার দেয়ার পাঁয়তারা করছেন। ফলে গতকাল সোমবার দুপুরে সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১’র জেনারেল ম্যানেজার (জিএম) বরাবরে স্মারকলিপি দিয়েছেন আছা বিবি (৫০) নামের অসহায় এক নারী। এরআগে গত ২৬ জুন মঙ্গলবার বিশ্বনাথ পল্লী বিদ্যুতের জোনাল অফিসের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (ডিজিএম) বরাবরে লিখিত অভিযোগ করেন ওই নারী।
দু’পক্ষের এক পক্ষে রয়েছেন গনাইঘরের মৃত আপ্তাব আলীর স্ত্রী আছা বিবি আর অন্য পক্ষে রয়েছেন পাশের বাড়ির মৃত আলকাছ আলীর ছেলে মৌরশ আলী (৩২), মৃত নোয়াব আলীর ছেলে বাধা মিয়া (৫০), মৃত আরজু মিয়ার ছেলে আখলু মিয়া (৬০)।
আছা বিবির অভিযোগ, প্রতিপক্ষের লোকজন প্রভাবশালী হওয়ায়র এক সপ্তাহ আগে দেওয়া লিখিত অভিযোগ তদন্ত না করে বিদ্যুৎ অফিসের কর্মকর্তারা উল্টো মিটার দেওয়ার পাঁয়তারা করছেন বলেও অভিযোগ করেন তিনি।
প্রতিপক্ষের বাদা মিয়া এ প্রসঙ্গে কথা বলতে রাজি না হলেও আখলু মিয়া বলেন, আছা বিবির জমির উপর দিয়ে জোরপূর্বক লাইন টানা হয়নি।
এ প্রসঙ্গে বিশ্বনাথ পল্লী বিদ্যুৎ জোনাল অফিসের ডিজিএম কমলেশ চন্দ্র বর্মন বলেন, প্রভাবশালীর বিষয় নয়, জোন ক্লোজিং থাকায় তিনি বিষয়টি তদন্ত করতে পারেননি। শীঘ্রই তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে হবেও জানান তিনি।