বাজেটে এক হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্ত করার বরাদ্দ থাকছে

0
3

কাজিরবাজার ডেস্ক :
জাতীয় সংসদে বৃহস্পতিবার (৭ জুন) পেশ করা হবে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট। জাতীয় এই বাজেটে নতুন এক হাজার বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্ত (মান্থলি পেমেন্ট ওর্ডার) করতে বরাদ্দ রাখা হয়েছে। মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের উপসচিব (বাজেট) মো. আব্দুল্লাহ আল মামুন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
একই কথা জানালেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (প্রশাসন) ড. অরুণা বিশ্বাস। বুধবার (৫ জুন) তিনি বলেন, ‘নতুন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে এমপিও দেওয়ার জন্য এবার বাজেটে বরাদ্দ থাকছে।’
তবে এক হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য মোট কত টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে তা সুনির্দিষ্টভাবে জানাননি এই দুই কর্মকর্তা। অতিরিক্ত সচিব (প্রশাসন) অরুণা বিশ্বাসের ভাষ্য, ‘মন্ত্রণালয়ের চাহিদা অনুযায়ী এমপিও বরাদ্দ প্রথমে কেটে দেয় অর্থ মন্ত্রণালয়। পরে বাজেটে যোগ করা হয়েছে। তবে তা বাড়তি বরাদ্দ নয়।’
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, এবারের বাজেটে শিক্ষা খাতে বরাদ্দ রাখা হয়েছে ৫৩ হাজার ৬৪ কোটি ১১ লাখ টাকা। শিক্ষা খাতে গত ১০ বছরের মধ্যেই এটাই সবচেয়ে বেশি বরাদ্দ বলে জানায় মন্ত্রণালয়ের বাজেট শাখা।
জানা গেছে- মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বিভাগের জন্য ২৪ হাজার ৮৯৬ কোটি ১৭ লাখ টাকা, কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের জন্য ৫ হাজার ৭৯৮ কোটি ২ লাখ টাকা এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জন্য ২২ হাজার ৪৮৮ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা জানান, ২০১০ সালের পর বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত হয়নি। প্রধানমন্ত্রীর আশ্বাসের পর বর্তমান সরকারের মেয়াদের শেষ বছরে এই খাতে বরাদ্দ রাখা হয়। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তৈরি করা এমপিও নীতিমালা অনুমোদনের পর এক বছরে ১ হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করতে সম্মত হয় অর্থ মন্ত্রণালয়।
এর আগে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. সোহরাব হোসাইন জানিয়েছিলেন, ’বাজেটে এমপিও বরাদ্দ থাকবে।’
মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের বাজেট শাখা থেকে জানানো হয়, অর্থ মন্ত্রণালয় প্রথমে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের জন্য পরিচালন সিলিং করে দেয় ১৭ হাজার ৪৭৭ কোটি টাকায়। পরে নতুন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিও ও অন্যান্য ব্যয়সহ মোট পরিচালন ব্যয় বরাদ্দ দেয় ১৮ হাজার ৮৮২ কোটি টাকা।
শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বিভাগের জন্য ২৪ হাজার ৮৯৬ কোটি ১৭ লাখ টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে। এর মধ্যে পরিচালন ব্যয় (অনুন্নয়ন খাত) ১৮ হাজার ৮৮২ কোটি টাকা এবং উন্নয়ন খাতের জন্য থাকছে ৬ হাজার ১৪ কোটি ১৭ লাখ টাকা।
২০১৭-১৮ চলতি অর্থবছরে বরাদ্দ ছিল প্রায় ২৩ হাজার ১৪৮ কোটি টাকা।