ফটো সাংবাদিকতায় চার দশক পূর্তিতে আতা’র সংবর্ধনা ॥ প্রযুক্তির প্রসারের সাথে বিশ্বব্যাপী ফটো সাংবাদিকতার চ্যালেঞ্জ বেড়েছে

0
34

সিলেটের স্বনামখ্যাত ফটো সাংবাদিক আতাউর রহমান আতার ‘চিত্র সাংবাদিকতায় চার দশক’ পূতি উপলক্ষে মনোয়ারা শাহনূর বুলি ফাউন্ডেশন গতকাল বৃহস্পতিবার সিলেট প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এক সম্মাননা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।
ফাউন্ডেশনের চেয়রম্যান আলহাজ¦ শাহনূর চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সিলেট জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা দেবজিৎ সিংহ। বিশেষ অতিথি ছিলেন সিলেট প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকরামুল কবীর, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল মাহমুদ ও সিলেট ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি আব্দুল বাতিন ফয়ছল। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন এমএসবি ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক পাবেল তালুকদার।
অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন চ্যানেল এস-এর বিশেষ প্রতিনিধি আব্দুল মালিক জাকা, সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম ও আব্দুর রশিদ রেনু, দৈনিক জালালাবাদের নির্বাহী সম্পাদক আবদুল কাদের তাপাদার, দৈনিক সিলেট বাণীর নির্বাহী সম্পাদক এম এ হান্নান, সাংবাদিক এম এ মতিন সাংবাদিক আবু তালেব মুরাদ, দৈনিক সংগ্রামের ব্যুরো চিফ কবির আহমদ, ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক শংকর দাস এবং ফটো সাংবাদিক দুলাল হোসেন। সমগ্র অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন সাংবাদিক চৌধুরী আমীরুল হোসেন।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি দেবজিৎ সিংহ বলেন, বিশ^ব্যাপী প্রযুক্তির প্রসার ঘটলেও ফটো সাংবাদিকতার চাহিদা এবং কদর বিন্দুমাত্রও কমেনি। বরং এই পেশায় চ্যালেঞ্জ বেড়েছে, অধিকতর দক্ষতা এবং সৃজনশীলতা দেখানোর যথেষ্ট সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে । আতাউর রহমান আতার হাত ধরে সিলেটে ফটো সাংবাদিকাতার মান উন্নয়নের পাশাপাশি এর ব্যাপক প্রসার ঘটবে বলে প্রধান অতিথি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সিলেট প্রেসক্লাব সভাপতি ইকরামুল কবির বলেন, আতাউর রহমান আতার কমর্ময় জীবন নতুন প্রজন্মের জন্য অনুকরণীয়। তাঁকে আরো বড়ো পরিসরে সম্মান জানানো উচিত।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সিলেট প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল মাহমুদ বলেন, পরিণত বয়সেও আতাউর রহমান আতা তাঁর কাজের প্রতি অত্যন্ত নিষ্ঠাবান। ব্যক্তিগত জীবনে অমায়িক, বিনয়ী হিসেবে সহকর্মীদের কাছে পছন্দের মানুষ।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি আব্দুল বাতিন ফয়সল বলেন, আতাউর রহমান আতা শুধু নিজে একজন সফল ও পেশাদার সাংবাদিক নন, তিনি বহু ফটো সাংবাদিক তৈরী করেছেন।
সভাপতির বক্তব্যে শাহনূর চৌধুরী বলেন, সংবাদপত্র ও সাংবাদিকতার একটি অপরিহার্য অংশ ফটো সাংবাদিকতা। সিলেট অঞ্চলে ফটো সাংবাদিকতার বিকাশে আতাউর রহমান আতার অবদান সবৃজন স্বীকৃত। তার ক্যামেরায় ধারণ করা অনেক দূর্লভ ছবি সিলেটের ইতিহাসের অংশ হয়ে আছে।
অনুষ্ঠানের শেষ পর্বে প্রধান অতিথি স্ংবর্ধিত ফটো সাংবাদিককে এমএসবি ফাউন্ডেশনের পক্ষে সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদান করেন। বিজ্ঞপ্তি