দু’দলের সংবাদ সম্মেলন প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশ-মালয়েশিয়া উভয়ই চায় জয়

0
10

{PPOIOIIIIস্টাফ রিপোর্টার :
জয় দিয়েই প্রথম ম্যাচ শুরু করতে চায় বাংলাদেশ ফুটবল দল। প্রস্তুতি ভালো। তবু মাঠে দর্শকদের উপস্থিতিই এই জয়টা সহজ করতে পারে বলে জানালেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মামুনুল। অন্যদিকে, মালয়েশিয়া জাতীয় দল কঠোর অনুশীলন করেছে। দলটির আত্মবিশ্বাস, কঠিন লড়াই হবে উদ্বোধনী ম্যাচে। মাঠে নামার আগেই গতকাল বুধবার বিকেলে হোটেল ‘রোজ ভিও’তে সংবাদ সম্মেলনে দু‘দলই জানালো তাদের প্রস্তুতি, প্রত্যাশার কথা। আজ বৃহস্পতিবার (২৯ জানুয়ারি) সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে শুরু হচ্ছে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ আন্তর্জাতিক ফুটবল টুর্ণামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচ। ওই ম্যাচে খেলবে বাংলাদেশ-মালয়েশিয়া ফুটবল দল।
সিলেটে দর্শক সমাগম ভালো হয়। তাই দর্শকদের মাঠে থেকে উৎসাহ দেওয়ার আহ্বান জানালেন মামুনুল, ‘দর্শক ভালো হলে, খেলা ভালো হবে।’তবে অধিনায়কের মনে মালয়েশিয়াকে নিয়ে খানিকটা ভয়ও কাজ করছে। তারপরও নিজেদের মাঠে ভালো কিছু উপহার দিতে চান তারা। মামুনুল বলেন, ‘ মালয়েশিয়া র‌্যাংকিংয়ে আমাদের চেয়ে এগিয়ে আছে। তবু এটা আমাদের হোম গ্রাউন্ড। এখানে আমরা এগিয়ে থাকার চেষ্টা করবো। আমরা বেস্ট খেলাটাই ঢেলে দিবো।’ দাঁত ব্যথা নিয়ে মহা সমস্যায় আছেন বাংলাদেশের কোচ লোভিক ডি কুইন্স। তিনি সংবাদ সম্মেলনে হাজির হতে পারেন নি। তবে এ জন্য সাংবাদিকদের কাছে স্যরি বলেছেন। তবু খেলার আগ মুহুর্তে কোনো ঝামেলা হল কি না-এমনটাই সন্দেহ দেখা দিয়েছিল। পরে সহকারী কোচ সাইফুল বারী টিটু জানালেন, ‘তাঁর খুব দাঁত ব্যথা। রাতে ঘুমুতে পারেননি। এখন ঘুমুচ্ছেন। চিন্তার কারণ নেই। কাল তিনি মাঠে থাকবেন।’
সহকারী কোচ আরো জানান, এক বছরে বাংলাদেশের প্লেয়িং স্টাইল ও ফিলোসফি ঠিক করা হয়েছে। ইতোমধ্যে দুটো প্র্যাকটিস ম্যাচ খেলা হয়েছে। প্রস্তুতি খুবই ভালো। খেলায় ম্যাচ জেতাটাই জরুরি। এ জন্য গোল চাই। টার্গেট থাকবে গোল না খেয়ে গোল করা। প্রথম ম্যাচে ৪-৩-৩ ছকে খেলবে দলটি। প্রথম ম্যাচে কিছু করে সেমিফাইনাল জিইয়ে রাখাই এখন মূল লক্ষ্য। বাংলাদেশ দল চাচ্ছে, ভালো খেলে ৩ পয়েন্ট নিয়ে আসতে।
এদিকে, মালয়েশিয়া বাংলাদেশকে হারানোর জন্য অনুশীলনকেই জোর দিচ্ছে। সিলেটে এসেই তারা মাঠে চলে গেছে। মাঠে ঘাম ঝরিয়েছে শুধু কঠিন লড়াই করার জন্য। কারণ, তারা জানে বাংলাদেশ দলের সাথে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে। সংবাদ সম্মেলনে মালয়েশিয়া দলের কোচের কথায় এমনই আভাস পাওয়া গেল। কোচ রাজিব ইসমাইল বলেন,‘খেলাটা কঠিন লড়াইয়ে হবে। সে জন্য অনুশীলন করেছে খেলোয়াড়েরা। প্রস্তুতিটা ভালোটাই উপহার দিবে বলে আশা করছি।’ মালয়েশিয়া দলের অধিনায়ক নাজিরুল বললেন,‘ ৪-২-৩ ছকে আমরা খেলবো। তবে বাংলাদেশ দলের খেলোয়াড়দের সম্পর্কে আগে থেকে কোনো ধারণা নেই। মাঠে নেমে খেলার ধরনে পরিবর্তন আসতে পারে। আমরা জয় চাই।’
সিলেটের অগণিত দর্শক অপেক্ষায় আছেন উদ্বোধনী ম্যাচের জন্য। আর প্রথম ম্যাচের দু অধিনায়ক মুখিয়ে আছেন ‘জয়’ দিয়েই শুরু করার জন্য। মাঠে লড়াই হবে। লড়াইয়ের আগে সংবাদ সম্মেলনে দু’জনই দর্শককে ভালো খেলা উপহার দেওয়ার জন্য হাতে রাখলেন হাত।