দীর্ঘ নাটকীয়তার পর সরে দাঁড়ালেন বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী সেলিম, দলীয় সপদে বহাল

0
5

কাজিরবাজার ডেস্ক :
দীর্ঘ নাটকীয়তার পর সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন বিএনপির ‘বিদ্রোহী’ প্রার্থী বদরুজ্জামান সেলিম।
বৃহস্পতিবার বেলা পৌনে তিনটার দিকে বিএনপির মনোনীত মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরীর বাসায় বিএনপির কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতাদের উপস্থিতিতে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন সেলিম।
এ সময় সেলিম বলেন, ‘দলীয় চেয়ারপারসন, মহাসচিব ও কেন্দ্রীয় নেতাদের অনুরোধে আমি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালাম।’ বিএনপির প্রার্থী আরিফুলকে বিজয়ী করতে একসঙ্গে কাজ করারও অঙ্গীকার করেন তিনি।
বিএনপি তার রক্তে, তার শিরায় শিরায়- এ কথা উল্লেখ সিলেট মহানগর বিএনপির এই শীর্ষ নেতা বলেন, ‘কালকে যখন আমাকে বাসায় এসে কেন্দ্রীয় নেতারা অনুরোধ করেন, তখন সেটি আমি ফেলতে পারিনি। তাই আমি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াচ্ছি।’
সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা আমান উল্লাহ জানান, দলের মহাসচিবের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সেলিমকে তার স্বপদে ( সিলেট মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক) বহাল করা হয়েছে।
দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করে প্রার্থী হওয়ায় গত ১০ জুলাই সেলিমকে সিলেট মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদকের পদ থেকে বহিষ্কার করেছিল কেন্দ্রীয় বিএনপি।
সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান, কেন্দ্রীয় সদস্য নাজিম উদ্দিন আলম, কেন্দ্রীয় নেতা কলিম উদ্দিন মিলন, আব্দুর রাজ্জাক, খন্দকার আব্দুল মুক্তাদির, মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী, সিলেট মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসাইন, ডা. শাহরিয়ার হোসেন, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলী আহমদ, মহানগর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আজমল বখত সাদেক প্রমুখ।
গত বুধবার দিবাগত রাতে সেলিমের বাসায় যান বিএনপির একটি কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিদল। সেখানে তারা সেলিমের মায়ের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন এবং বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন। একপর্যায়ে নির্বাচন নিয়ে কথা উঠলে সেলিমকে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াতে অনুরোধ করেন কেন্দ্রীয় নেতারা। এ সময় বিএনপির মনোনীত মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরীও সেখানে উপস্থিত হন।
আগামী ৩০ জুলাই সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোট নেয়া হবে। ওই দিন আরও দুই সিটি করপোরেশন রাজশাহী ও বরিশালেও ভোট হবে।