তীর শিলং জুয়ার বোর্ডে পুলিশের হানা ॥ তালতলা ও ঘাসিটুলা থেকে ৯ জুয়াড়ী আটক

0
4

স্টাফ রিপোর্টার :
নগরীর তালতলা ও ঘাসিটুলায় পৃথক অভিযান চালিয়ে ৯ তীর শিলং জুয়াড়ীকে আটক করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার বিকেল ৪ টার দিকে আনা ম্যনাশন ফের তীর শিলং জুয়ার বোর্ডে অভিযান চালিয়ে ৬ জুয়াড়ীকে আটক করেছে কোতোয়ালী থানা পুলিশ। এ সময় শিলং তীরের এজেন্টারা পেছনের জানালা দিয়ে পালিয়ে যায়। তবে আটককৃতদের নাম পরিচয় জানা যায়নি।
এদিকে গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক জিএম হামিদুর রহমান ও এসআই মোহাম্মদ জানু মিয়া’দ্বয়ের নেতৃত্বে সঙ্গীয় অফিসার ও ফোর্সসহ নগরী ঘাসিটুলা মোকামবাড়ী ৮৪/সবুজসেনা কাদির মিয়ার বাসার সামনে পাকা রাস্তার উপর অভিযান পরিচালনা করে তীর শিলং জুয়া খেলার সামগ্রী ও নগদ টাকাসহ ৩ জুয়াড়ীকে আটক করে। আটককৃতরা হচ্ছে- কুমিল্লা জেলার কোতোয়ালী থানার রেইসকোর্স ১১৩৩ নং বাসার মৃত জাফর আলীর পুত্র খাদিম রুস্তুমপুরের তাজুল মিয়ার কলোনী বাসিন্দা সাজেদুল ইসলাম সাজু (৩০), সুনামগঞ্জ জেলার মধ্যনগর থানার দক্ষিণ উরা গ্রামের মৃত জগনাথ তালুকদারের পুত্র বর্তমানে শিববাড়ী এলাকায় বাসিন্দা পরিমল তালুকদার (২৯) ও সুনামগঞ্জ জেলার দিরাই থানার কাইমা মধুপুর গ্রামের মৃত আকামত আলী পুত্র বর্তমানে ঘাসিটুলা বেতেরবাজারের বাসিন্দা মো: আলী (৫৫)। তখন তাদের সহযোগীরা দৌড়ে পালিয়ে যায়। আটক ও পলাতক জুয়াড়ীদের আসামী করে এসআই মোহাম্মদ জানু মিয়া কোতয়ালী থানায় মামলা (নং-১৩ ০৫/০৪/২০১৮) দায়ের করে গতকাল বৃহস্পতিবার আসামীদেরকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।
অপরদিকে, গত বুধবার মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের এসআই অসিত চন্দ্র দাস সঙ্গীয় অফিসার ও ফোর্সসহ নগরীর ঘাসিটুলা বেতবাজার আলফু মিয়ার কলোনীস্থ টং ঘরের সামনে অভিযান পরিচালনা করে আব্দুর রহমান (২৮) নামে তীর শিলং জুয়া খেলার সামগ্রী ও নগদ টাকাসহ আরেক জুয়াড়ীকে আটক করে। আটককৃত আব্দুর রহমান সুনামগঞ্জ জেলার দিরাই থানার হাছিমপুর গ্রামের রনরায়ের পুত্র। বর্তমানে সে নবাব রোডের তৈরব আলী কলোনীর বাসিন্দা। তখন তার সহযোগিরা দৌড়ে পালিয়ে যায়। আটক ও পলাতক জুয়াড়ীদের আসামী করে এসআই/অসিত চন্দ্র দাস কোতয়ালী থানায় এজাহার দায়ের করলে তাদের বিরুদ্ধে মামলা নং-১২ (৪-০৪-১৮) রুজু করে আটককৃত আসামীকে গতকাল বৃহস্পতিবার আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।