তাপমাত্রা বাড়লেও কমছে না শীত, বেড়েছে রোগ বালাই ॥ গরম কাপড়ের দোকানগুলোতে বেড়েছে বিক্রি

0
9

স্টাফ রিপোর্টার :
তাপমাত্রা কিছুটা বাড়লেও রয়ে গেছে শীতের দাপট। টানা শৈত্যপ্রবাহে চরে দুর্ভোগে দেশবাসী। আবহাওয়ার এমন অবস্থা আরও এক সপ্তাহ থাকতে পারে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা। তারা বলছেন, কিছুদিন পর তাপমাত্রা কিছুটা বাড়তে পারে, তবে চলতি মাসজুড়ে অনুভূত হতে পারে মাঝারি ধরনের শীত। বৃহস্পতিবারও তাপমাত্রা বাড়লেও মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ অব্যাহত থাকে। ঘন কুয়াশা ও ঠা-া বাতাসের কারণেই শীতের তীব্রতা হ্রাস পাচ্ছে না। শীতজনিত রোগে আক্রান্তের সংখ্যা আবার বেড়েছে। ঘন কুয়াশায় ইরি-রোরো ধানের চারাসহ শীতকালীন ফসল হচ্ছে ক্ষতিগ্রস্ত। তীব্র শীতে ছিন্নমূল ও গরিব মানুষের কষ্টের সীমা নেই। মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা হয় ব্যাহত। হাসি ফুটে ওঠে গরম কাপড় বিক্রেতাদের মুখে। গরম কাপড়ের দাম বেড়ে যায় কয়েকগুণ। সকালের দিকে ঘন কুয়াশার কারণে সড়ক পথে যানবাহন চলাচল করছে হেড লাইট জ্বালিয়ে।
গত বছর শীত মৌসুমে তেমন শীত অনুভূত হয়নি। সারা শীত মৌসুমে মাত্র কয়েকদিন মাঝারি ধরনের শীতের দাপট ছিল। কিন্তু এ বছর তীব্র শীতের কবলে পড়েছে মানুষ। গত এক সপ্তাহ ধরে তীব্র শীত অনুভূত হচ্ছে। বৃহস্পতিবার কিছুক্ষণের জন্য সূর্যের আলোর দেখা পেলেও তেমন তেজ ছিল না। দিনভর মাঝারি ধরনের শীত অনুভূত হয়। নগরীর গরম কাপড়ের দোকানগুলোতে ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। চড়া দামে বিক্রি হয় গরম কাপড়। দিনের বেলাতেও প্রত্যেক মানুষের শরীর ছিল গরম কাপড়ে ঢাকা। সন্ধ্যা ঘনিয়ে আসার সঙ্গে সঙ্গে শীতের তীব্রতা যেন বাড়তে থাকে। কমতে থাকে পথচারীদের সংখ্যাও।