জাতীয় জ্বালানি নিরাপত্তা দিবস-২০১৮ উদযাপন ॥ জ্বালানী গ্যাস ব্যবহারে মিতব্যয়ী হতে হবে

0
11

সিলেট গ্যাস ফিল্ডস লিমিটেড ও জালালাবাদ গ্যাস টি অ্যান্ড ডি সিস্টেম লিঃ এর যৌথ আয়োজনে ৯ আগষ্ট বৃহস্পতিবার সিলেটে উদযাপিত হলো জাতীয় জ্বালানি নিরাপত্তা দিবস-২০১৮। ১৯৭৫ সালের ৯ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তদানীন্তন শেল অয়েল কো¤পানীর মালিকানাধীন তিতাস, হবিগঞ্জ, কৈলাশটিলা, রশিদপুর ও বাখরাবাদ এই ৫টি গ্যাস ক্ষেত্র নামমাত্র মূল্যে (৪.৫০ মিলিয়ন পাউন্ড) ক্রয়ের মাধ্যমে রাষ্ট্রীয় মালিকানায় ন্যস্ত করেন। বাংলাদেশের জ্বালানি নিরাপত্তার ক্ষেত্রে এটি একটি মাইল ফলক হিসেবে বিবেচিত। জাতির জনক দেশের প্রাকৃতিক গ্যাস ও খনিজ স¤পদ পুরোপুরিভাবে দেশের গণমানুষের স্বার্থে ব্যবহারের ব্যবস্থা নিশ্চিত করেন। জ্বালানি খাতে বঙ্গবন্ধুর এ দূরদর্শী ও যুগান্তকারী সিদ্ধান্তের ফলে দেশের জ্বালানি খাতের অগ্রযাত্রার শুভসূচনার এ দিনটিকে স¥রণীয় করে রাখার জন্যই ২০১০ সালে মহাজোট সরকার কর্তৃক ৯ আগস্টকে জাতীয় জ্বালানি নিরাপত্তা দিবস হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। এ দিনটি প্রতিপালনের অংশ হিসেবে প্রাকৃতিক গ্যাসের সাশ্রয়ী ব্যবহারে গণসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে জালালাবাদ গ্যাস টি অ্যান্ড ডি সিস্টেম লিঃ এবং সিলেট গ্যাস ফিল্ডস লিমিটেড এর যৌথ আয়োজনে সিলেটের মেন্দিবাগস্থ জালালাবাদ গ্যাসের নিজস্ব অডিটরিয়ামে গতকাল বৃহস্পতিবার এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
জালালাবাদ গ্যাস টি অ্যান্ড ডি সিস্টেম লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী নিজাম শরিফুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেটের জেলা প্রশাসক জনাব নুমেরী জামান। এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট গ্যাস ফিল্ডস লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী মোঃ লুৎফুর রহমান। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন জালালাবাদ গ্যাস টি অ্যান্ড ডি সিস্টেম লিঃ এর ইমাম মাওলানা মোঃ আকমল হোসেন। এরপর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু, তাঁর পরিবারের সদস্যগণ ও অন্যান্য সকল শহীদদের স্মরণে ১ মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। এরপর জাতীয় সংগীত পরিবেশন করা হয়। অনুষ্ঠানে জাতির পিতা ও তাঁর প্রয়াত পরিবার পরিজন এবং সকল শহীদানদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।
আলোচনা সভায় জালালাবাদ গ্যাস টি অ্যান্ড ডি সিস্টেম লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী নিজাম শরিফুল ইসলাম তাঁর বক্তব্যে বলেন যে, আমাদের সকলকে গ্যাস ব্যবহারে মিতব্যয়ী ও সাশ্রয়ী হতে হবে। গ্যাস অফুরন্ত কোন স¤পদ নয়, এর সুষ্ঠু ও সাশ্রয়ী ব্যবহারে সংশ্লিষ্ট সকলকে সম্মিলিত উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে। তিনি আরো বলেন, বাঙালি জাতির মহানায়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিদেশী প্রতিষ্ঠানের নিকট থেকে তৎকালীন সময়ে ৫টি গ্যাস ক্ষেত্র নামমাত্র মূল্যে ক্রয় করে বাংলাদেশের ইতিহাসে যুগান্তকারী ইতিহাস রচনা করেন। জাতির পিতার দুরদর্শী চিন্তা চেতনার সুফল বর্তমানে আমরা সকলেই ভোগ করে চলেছি।
অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি সিলেটের জেলা প্রশাসক জনাব নুমেরী জামান বলেন, প্রাকৃতিক গ্যাস তথা সকল ক্ষেত্রে জ্বালানি ব্যবহারে আমাদেরকে অবশ্যই মিতব্যয়ী হতে হবে। দেশের অগ্রযাত্রায় জ্বালানির সর্বোচ্চ ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে। তিনি আরো বলেন, বর্তমানে আমাদের গ্যাস কুপগুলো থেকে যে গ্যাস উৎপাদন হচ্ছে তা আমাদের চাহিদা মেটাতে পারছেনা। আমরা এলএনজি আমদানি করছি, যার মূল্য অনেক বেশি। তাই আমাদের গ্যাস ব্যবহারে আরো মিতব্যয়ী হতে হবে।
অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি সিলেট গ্যাস ফিল্ডস লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী মোঃ লুৎফুর রহমান বলেন জ্বালানির সুষ্ঠু ব্যবহার এবং উহা সংরক্ষণে সকলের সম্মিলিত অংশ গ্রহণ প্রয়োজন।
জাতীয় জ্বালানি নিরাপত্তা দিবস-২০১৮ উপলক্ষে জালালাবাদ গ্যাস টি অ্যান্ড ডি সিস্টেম লিমিটেড কর্মকান্ডের উপর বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত উপস্থাপন করেন মহাব্যবস্থাপক (পরিকল্পনা) ও কোম্পানী সচিব প্রকৌশলী জসিম উদ্দিন আহমদ এবং সিলেট গ্যাস ফিল্ডস লিমিটেডের কর্মকান্ডের উপর বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত উপস্থাপন করেন সহকারী ব্যবস্থাপক (কারিগরী) মোঃ আমিনুল ইসলাম। আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন সিলেট গ্যাস ফিল্ডস লিমিটেড এর মহাব্যবস্থাপক (এলপিএম) প্রকৌশলী রওনাকুল ইসলাম, জালালাবাদ গ্যাস টি অ্যান্ড ডি সিস্টেম লিঃ এর মহাব্যবস্থাপক (কন্সট্রাকশন) প্রকৌশলী শোয়েব আহমদ মতিন, জালালাবাদ গ্যাস অফিসার্স ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক জনাব তৌফিকুল আহসান চৌধুরী, সিলেট গ্যাস ফিল্ডস লিমিটেড অফিসার্স ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন সভাপতি প্রকৌশলী হারুনুর রশিদ মোল্লাহ, জালালাবাদ গ্যাস কর্মচারীলীগ (সিবিএ-১৬৯০) এর সভাপতি মুরুলী সিংহ, সিলেট গ্যাস ফিল্ডস লিমিটেড কর্মচারী ইউনিয়ন (সিবিএ) এর সাধারণ সম্পাদক মোঃ আবু ইউসুফ মিয়া। বিজ্ঞপ্তি