ছাতকে প্রেমের টানে ধর্ম ত্যাগ অত:পর বিয়ে

0
5

ছাতক থেকে সংবাদদাতা :
ছাতক উপজেলার দোলারবাজার ইউনিয়নের চাইড়গাঁও (রামপুর) গ্রামে প্রেমের টানে ধর্ম ত্যাগ করে মুসলিম নারিকে বিয়ে করেছে এক প্রেমিক। প্রেমিক রুমন বৈদ্য হিন্দু ধর্ম ত্যাগ করে মুসলিম হয়ে বিয়ে করেছে তার প্রানপ্রিয় প্রেমিকাকে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ছাতক উপজেলার দোলারবাজার ইউনিয়নের চাইড়গাঁও (রামপুর) গ্রামের হিরণ মিয়ার কন্যা আসমা বেগমের সাথে দু’বছর আগে মুটোফোনের মাধ্যমে পরিচয় ও একপর্যায়ে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে জগন্নাথপুর উপজেলার হারগাঁও গ্রামের রাজিব বৈদ্য’র পুত্র রুমন বৈদ্যের। রুমন বৈদ্য রাজধানী ঢাকার একটি ফার্ণিচার দোকানের কারিগর। ২৫অক্টোবর প্রেমিক যুগল বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় প্রেমিকা আসমার পরিবারের পক্ষে ছাতক থানায় একটি সাধারন ডায়রি করা হয়। ১১ নভেম্বর ওসমানী নগর থানার মোগলাগাঁও এলাকা থেকে ছাতক থানা পুলিশ প্রেমিক যুগলকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। প্রেমিক যুগল দু’জনই প্রাপ্ত বয়স্ক হওয়ায় বিয়ের বিষয়ে সম্মতি প্রদান করেন প্রেমিক-প্রেমিকা। অবশ্য বিবাহ বন্ধনে বাদ সাধে ধর্ম।
রবিবার প্রেমিক রুমন বৈদ্য সুনামগঞ্জের জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে হাজির হয়ে নোটারি পাবলিকের মাধ্যমে হিন্দু ধর্ম ত্যাগ করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে তার নাম রাখা হয় আহমদ হোসাইন আবদুল্লাহ। ওই দিনই আদালতের মাধ্যমে ১০ লাখ টাকার কাবিন রেজিষ্ট্রিতে আসমা-আবদুল্লাহর শুভ বিবাহ সম্পাদন করা হয়।