খালেদা জিয়াকে জেলে রেখে আ’লীগ ফাঁকা মাঠে গোল দিতে চায় — কলিম উদ্দিন মিলন

0
5

ছাতক থেকে সংবাদদাতা :
বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক, সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি, সাবেক সংসদ সদস্য কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন বলেছেন, সরকার বিএনপিকে বাদ দিয়ে ৫ জানুয়ারীর মতো একটি নির্বাচনের আনুষ্ঠানিকতা দেখিয়ে আবারো ক্ষমতায় আসতে চায়। নেতা-কর্মীদের উপর হামলা ও মামলা দিয়ে প্রক্রিয়া অব্যাহত রেখেছে বাকশালী সরকার। দেশের জনগণ সরকারের এ ছল-চাতুরী বুঝতে পেরেছে। তাই দেশের জনগণ লুটপাটকারী এ সরকারকে ক্ষমতা থেকে উৎখাত করতে ঐক্যবদ্ধ। ভোটার বিহীন আর কোন নির্বাচন এ দেশে হতে দেয়া যাবে না। আন্দোলনের মাধ্যমে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করেই দেশে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। শনিবার বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের ৪০তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে ছাতকে বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের উদ্যোগে আয়োজিত মিছিল শেষে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে অনুষ্ঠিত এক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। উপজেলা বিএনপির সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুর রহমানের সভাপতিত্বে ও উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক হিফজুল বারি শিমুলের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, কৃষক দলের কেন্দ্রীয় নেতা ডাক্তার আফসার উদ্দিন, উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক নজরুল ইসলাম, অধ্যাপক শাহ্ শফিকুল আলম মতি, মোশারফ হোসেন, কাজী মাওলানা আব্দুস সামাদ, পৌর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুল আউয়াল, সামছুর রহমান সামছু, পৌর কাউন্সিলর জসিম উদ্দিন সুমেন, বিএনপি নেতা ফয়জুর রহমান, এডভোকেট আব্দুল কাহার, জাহেদুল ইসলাম আবাব, লায়েক শাহ্, সামসুর রহমান বাবুল, সামছুদ্দিন, আতাউর রহমান এমরান, আব্দুল মমিন, আব্দুল কাবির, আলী হোসেন মানিক, কয়েছ আহমদ, মনির উদ্দিন মেম্বার, আলী আশরাফ তাহিদ মেম্বার, আব্দুর রহিম মেম্বার, বাবুল মিয়া মেম্বার, উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক সাজ্জাদ হোসেন, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি বাকী বিল্লাহ্, শ্রমিক দলের সাধারণ সম্পাদক শফি উদ্দিন, পৌর শ্রমিক দলের সভাপতি মোজাম্মেল হক রুহেল, যুবদলনেতা এমরান আহমেদ, আবুল হোসেন, তারেক আহমদ, লিজন তালুকদার, কুতুব উদ্দিন, কবির আহমদ, ছাত্রদলের আব্দুল মনিম মামনুন, আরিফ বিল্লাহ, ইমরান আহমদ, নোমান ইমদাদ কানন, আব্দুল বাকী মুহিত, রাহেল আহমদ, সুজন ইমদাদ কার্জন, কামরুল হাসান রুকন, মাহিব আহমদ, সুমন মিয়া, একরাম উদ্দিন, ফাহিম আহমদ, রাজু মিয়া প্রমুখ।