ওসমানী হাসপাতালে রোগীর স্বজনদের উপর হামলা, আহত ২

0
7

স্টাফ রিপোর্টার :
সিলেট এমএজি ওসমানী হাসপাতালে রোগীর স্বজনদের উপর হাসপাতালের দায়িত্বরত নিরাপত্তাকর্মীদের হামলা চালানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে রোগীর ২ স্বজন আহত হয়েছেন। গতকাল মঙ্গলবার দুপুর ১২ টার দিকে হাসপাতালের ভেতরে এ ঘটনা ঘটে। হাসপাতালে ভর্তি থাকা রোগীকে দেখতে ভেতর প্রবেশ করার জন্য নিরপত্তারক্ষীরা টাকা চাইলে এ নিয়ে বচসা থেকে হামলার ঘটনা ঘটে বলে জানা গেছে।
হামলার অভিযোগ করে রোগীর স্বজন শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মচারী ইউনিয়নের সহ-সভাপতি আজিজুর রহমান বলেন, আমার মেয়ে নাজিয়া রহমান এই হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে মেয়ের জন্য খাবার নিয়ে আমার ছেলে ও ভাগনে হাসপাতালে প্রবেশ করতে চায়। এসময় ভেতরের ফটকে নিরাপত্তাকর্মীরা তাদের আটকে টাকা দাবি করে। আমার ছেলে টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে এ নিয়ে তর্কাতর্কি শুরু হয়। তর্কাতর্কির একপর্যায়ে তারা আমার ছেলে সাইদুল রহমান (১৮) ও কাবুল হোসেন (২১) কে মারধর করে। হামলায় কাবুল হোসেনের মাথা ফেটে গেছে বলে জানান আজিজুর রহমান। এসময় আজিজুর রহমানের স্ত্রী আনোয়ারা বেগম এগিয়ে এলে তাকে নিরাপত্তারক্ষীরা লাঞ্ছিত করে বলে অভিযোগ করেন তিনি।
ওসমানী হাসপাতালের দায়িত্বরত পুলিশ কর্মকর্তা এসআই ফারুক বলেন, নিরাপত্তরক্ষীদের সাথে রোগীর স্বজনদের একটি অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেছে বলে শুনেছি। তবে এ ব্যাপারে লিখিত কোনো অেিভযাগ পাইনি।
এ ব্যাপারে ওসমানী হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. দেবপদ রায় বলেন, হাসপাতালের চিকিৎসা সেবা নিশ্চিতে ও দর্শনার্থীদের চাপ সামলাতে দর্শনার্থী প্রবেশের জন্য সময় নির্দিষ্ট করে দেওয়া হয়েছে। এই সময়ের বাইরে যাতে দর্শনার্থীরা প্রবেশ করতে না পারেন সে জন্য বিভিন্ন ফটকে নিরাপত্তারক্ষী বসানো হয়েছে। একটি বেসরকারি সংস্থার মাধ্যমে চুক্তিভিত্তিক নিরাপত্তাকর্মী নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। তিনি বলেন, অনেক সময় রোগীর স্বজনরা নির্ধারিত সময়ের বাইরেও হাসপাতালে প্রবেশ করতে চান। এনিয়ে নিরাপত্তারক্ষীদের সাথে তর্কাতর্কি হয়। অনেকে টাকাও নেয় বলে অভিযোগ পাই। এমন অভিযোগ পেলে আমরা সাথে সাথেই ব্যবস্থা নেই।