অবিলম্বে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারসহ ৫ দফা বাস্তবায়নের দাবি

0
11

শ্লোগান, প্লে-কার্ডে ক্যাম্পাসের সমস্যা সংকট তুলে ধরে গতকাল ভার্সিটি গেইটে সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির সাধারণ শিক্ষার্থীদের অবস্থান কর্মসূচি পন্ড করে দিয়েছে পুলিশ। অবস্থান কর্মসূচি পালনের লক্ষ্যে একে একে বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাস গেইটে জড়ো হয়, কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের প্ররোচণায় ব্যাপক সংখ্যক পুলিশ গেইটে অবস্থান নেই এবং শিক্ষার্থীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। পুলিশী বাধা মোকাবেলা করে শিক্ষার্থীরা তাৎক্ষণিক প্রতিবাদ সমাবেশ করে।
সমাবেশে শিক্ষার্থীরা বলেন, ভিসি, প্রোভিসি নিয়োগসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরীণ সংকট নিরসনে ৫ দফা দাবিতে সাধারণ শিক্ষার্থীরা দীর্ঘ দিন ধরে আন্দোলন চালিয়ে আসছে। কিন্তু প্রশাসনের পক্ষ থেকে বারবার আশ্বাস দিলেও কোন স্পষ্ট বক্তব্য না দিয়ে গত ১৮ সেপ্টেম্বর বহিরাগত সন্ত্রাসী নিয়ে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের উপর হামলা চালানো হয়। বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর বরাবর লিখিত অভিযোগ করলেও হামলার শিকার দুই শিক্ষার্থীকেই বহিষ্কার করা হয়। এর প্রতিবাদে এমবিএ প্রোগ্রামের শিক্ষার্থীরা সকল ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে আন্দোলন কর্মসূচি পালন করতে থাকে। এর অংশ হিসাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে অবস্থান কর্মসূচী ও প্রতিবাদী গানের আয়োজন করে শিক্ষার্থীরা। কিন্তু পুলিশী বাধায় আজ শিক্ষার্থীরা তাদের কর্মসূচি পালন করতে পারেনি। প্রশাসন হামলা করে, মামলার ভয় দেখিয়ে, বহিষ্কার এবং পুুুলিশ দিয়ে আন্দোলন বদ্ধ করে দিতে চাইছে। আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা জানান, “আমারা আমাদের ক্যাম্পাস রক্ষার দাবি নিয়ে আন্দোলন করছি। আমরা স্থায়ী ভিসি, প্রোভিসি চেয়েছি। রেজিস্টার, প্রক্টর, ডিনসহ সকল গুরুত্বপূর্ণ পদে দক্ষ যোগ্য অভিজ্ঞ ব্যক্তিদের নিয়োগের কথা বলেছি। অথচ আমাদের শিক্ষা সংশ্লিষ্ট এই দাবির প্রতি ভ্রুক্ষেপ না করে আন্দোলন করার অপরাধে আমাদেরকেই হামলা, বহিষ্কার, হুমকি, হয়রানি করা হচ্ছে। তাই অবিলম্বে বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারসহ ছাত্রদের ৫ দফা দাবি মানা না হলে সিলেটের সকল সামাজিক, সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক বিশিষ্ট ব্যক্তিদের নিয়ে অভিভাবক সমাবেশ, ক্যাম্পাস ঘেরাওসহ আরো কঠোর কর্মসূচি পালন করা হবে। বিজ্ঞপ্তি