অপসংস্কৃতির বিস্ফোরণ

জালাল আহমেদ জয়

বাঙলা-মায়ের আপন কোলে
অন্য-সখা বাজে দোলে,
আলালের-দুলাল ছেড়ে
স্টার-প্লাস জি-টিভিতে দৌড়ে।

প্রাণো স্পন্দনে বাঙালি চিরন্তন
“তবুও কেন”
অপসংস্কৃতি করে আলোড়ন ?

দুর্ভিক্ষের বেশে
জড়ায়ে প্রাণের দেশে,
মাতৃ-মায়া হারায়ে
অন্য-ছায়া লয় জড়ায়ে।

পরিবারে পড়ছে ভীষণ চাপ
যাহার নেই কোন মাপ !
অশান্তি-আর গোলমালে
যুদ্ধ যেন ছন্দের তালে।
সমাজে লেগেছে ওয়েষ্টার্ণের ঝড়
আপন ভূমি কেন পর ?
মুখে বাঙলায় ভালোবাসি ;
হৃদয়ে-ওয়েষ্টার্ণ কালচার
পোশাকে-পাশ্চাত্যের মহাচার,
কেন বাঙলা অত্যাচার ?

“তরুণ-তরুণী”
ঝুঁকছে মাদকের পথে
ছন্দবিহীন অপ-ছায়ার সাথে,
“বাঙালি”
তুমি কালচার শিখো
“প্রয়োজনে”
গ্রামে গ্রামে ঘুরে
কৃষাণের রূপ দেখো।

হাজার-পূর্ণতায় অপরূপ বাঙলা
রবীন্দ্র-নজরুলের ছন্দমালা,
জারি-সারি, বাউল গানে
প্রাণো-মন টানে
বাঙলা রূপের মায়ায়
বিশ্বের ছায়া হারায়।