ওসমানীর জন্ম ও মৃত্যুবার্ষিকী সারাদেশে জাতীয়ভাবে করুন —————–অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার

সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার পরিতোষ ঘোষ বলেছেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নিদের্শে বীর সেনানী বঙ্গবীর জেনারেল এম.এ.জি. ওসমানী রণাঙ্গণে নেতৃত্ব নিয়ে পাকিস্তানী বাহিনীকে পরাজিত করে একটি স্বাধীন রাষ্ট্র উপহার দিয়েছিলেন। তার জন্ম ও মৃত্যুবাষিকী সারাদেশে জাতীয়ভাবে পালন করা এখন সময়ের দাবী। মহান মুক্তিযোদ্ধের বীর সেনানী, বাংলার গর্ব ও অহংকার বঙ্গবীর জেনারেল এম.এ.জি. ওসমানীর শততম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বঙ্গবীর ওসমানী জন্ম ও মৃত্যু বার্ষিকী উদযাপন পরিষদ সিলেটের উদ্যোগে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথাগুলো বলেন।
জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও বঙ্গবীর ওসমানী জন্ম ও মৃত্যু বার্ষিকী উদযাপন পরিষদ সিলেটের সভাপতি আলহাজ্ব আতাউর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন জেলা বারের এ.পি.পি. এডভোকেট শামসুল ইসলাম। চিত্রাংকন কমিটির সদস্য সচিব এডভোকেট মো. সাজ্জাদুর রহমানের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেট প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি এম.এ. হান্নান, বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তাবায়ন ফাউন্ডেশন কেন্দ্রীয় কমিটির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক রোটারিয়ান আসাদুজ্জামান, মানবাধিকার বাস্তবায়ন ফাউন্ডেশন সিলেট জেলার সভাপতি রোটারিয়ান আশরাফুর রহমান চৌধুরী, চিত্রাংকন কমিটির আহবায়ক রোটারিয়ান শামীম আহমদ। অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত অতিথির বক্তব্য রাখেন সিসিকের ১৯ নম্বর ওয়ার্ডের নবনির্বাচিত কাউন্সিলর এস.এম. শওকত আমীন তৌহিদ।
বক্তব্য রাখেন, মনোরঞ্জন তালুকদার, জাদুশিল্পী মো. বেলাল উদ্দিন, মধু মিয়া, জাভেদ আহমদ, শফিকুর রহমান শফিক, জাহাঙ্গীর আলম, খালেদ মিয়া, আব্দুর রহিম তালুকদার, মওদুদ হোসেন চৌধুরী সুমন, সুদীপ বৈদ্য, ইউসুফ সেলু, শিরিন চৌধুরী, মানিক মিয়া, মো. আব্দুল আহাদ, রাসেল আহমদ, মামুন চৌধুরী, মো. শাহ আলম প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি