কমলগঞ্জের আদমপুর ইউপি চেয়ারম্যানের জামিন না মঞ্জুর, কারাগারে প্রেরণ

কমলগঞ্জ থেকে সংবাদদাতা :
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার সিরাজ হত্যা মামলায় উচ্চ আদালতের নির্দেশনায় মৌলভীবাজারের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতে হাজিরা দিতে গিয়ে জামিন না মঞ্জুর হলে আদমপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, বিএনপি নেতা মো: আবদাল হোসেনকে কারগারে প্রেরণ করা হয়। বৃহস্পতিবার দুপুরে মৌলভীবাজার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের দায়রা ৬৫/৯৯ নং মামলায় আদমপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো: আবদাল হোসেন হাজির হয়েছিলেন।
জানা যায়, ১৯৯৬ সালে ৬ অক্টোবর দুষ্কৃতিকারীদের হাতে পরিকল্পিতভাবে নির্মমভাবে নিহত হয়েছিলেন কমলগঞ্জ উপজেলার আদমপুরের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সিরাজ মিয়া। এ ঘটনার সাথে আদমপুর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান, বিএনপি নেতা মো: আবদাল হোসেন জড়িত ছিলেন বলে তাকেও মামলায় আসামী করা হয়েছিল। নি¤œ^ আদালতে দীর্ঘদিন মামলা চলার পর এ মামলা থেকে আবদাল হোসেনকে অব্যাহতি দিলে তারা (বাদিপক্ষ) এ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেন। এ আপিলের শুনানি শেষে আসামী আবদাল হোসেনকে নি¤œ আদালতে মৌলভীবাজারে হাজিরা দিতে উচ্চ আদালত নির্দেশনা দেন। উচ্চ আদালতের নির্দেশনায় বৃহস্পতিবার আদমপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কমলগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সহ-সভাপতি মো: আবদাল হোসেন মৌলভীবাজারের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতে হাজির হয়ে জামিন প্রার্থনা করেন। আদালত তার জামিন না মঞ্জুর করে কারগারে প্রেরণ করেন।
মৌলভীবাজারের জজ আদালতের পিপি এড: এএসএম আজাদুর রহমান আজাদ মহামান্য হাইকোর্টের ডাইরেকশনে কমলগঞ্জের আদমপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবদাল হোসেন আদালতে হাজিরা দিলে আদালত জামিন না মঞ্জুর করে সি, ডব্লিউ মূলে তাঁকে কারাগারে প্রেরণের সত্যতা নিশ্চিত করেন।
এ মামলার বাদিপক্ষ নিহত ব্যবসায়ী সিরাজ মিয়ার ভাই জালাল উদ্দিন বলেন, উচ্চ আদালতে আপিল করায় আদালতের নির্দেশনায় আবদাল হোসেন বৃহস্পতিবার মৌলভীবাজারের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতে হাজির হয়েছিলেন। আদালত তার জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠিয়েছেন বলে তিনি জানান। এ আপিল মামলার পরবর্তী শুনানি ১২ সেপ্টেম্বর নির্ধারণ হয়েছে বলেও জালাল উদ্দিন জানান।