গণভবনে মেয়র আরিফ সহ ৩৬ কাউন্সিলর আজ শপথ নিচ্ছেন

স্টাফ রিপোর্টার :
দ্বিতীয় মেয়াদে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের (সিসিক) মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী আজ বুুধবার শপথ নিতে যাচ্ছেন। আজ সকাল ৯ টায় গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে শপথ বাক্য পাঠ করাবেন। মেয়র আরিফের মা-স্ত্রী- ছেলে-মেয়ে এবং তিনি নিজেসহ পরিবারের ৬ সদস্য শপথ অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন। শপথ গ্রহণ শেষে তিনি বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ দলীয় নেতৃবৃন্দকে নিয়ে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের কবর জিয়ারত করবেন বলে তার সাথে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে।
মেয়রের শপথ অনুষ্ঠানের পর সিলেট সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচিত সাধারণ ও সংরক্ষিতসহ ৩৬ কাউন্সিলরকেও একই স্থানে শপথ বাক্য পাঠ করাবেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন। ইতিপূর্বে শপথ গ্রহণের জন্য গতকাল মঙ্গলবার মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী ৩৬ কাউন্সিলরদের নিয়ে ঢাকার পথে রওয়ানা হয়েছেন বলে জানা গেছে।
চলতি বছরের ১১ আগষ্ট দ্বিতীয় মেয়াদে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র নির্বাচিত হন বিএনপির মনোনীত প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী।
আরিফুল হক চৌধুরী জানিয়েছেন, শপথ গ্রহণের পরপরই বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের নেতৃত্বে দলের প্রতিষ্ঠাতা সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের কবর জিয়ারত করবেন তিনি। তার সাথে কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দও কবর জিয়ারতে অংশ নেবেন।
এর আগে ২০১৩ সালের ২১ জুলাই প্রথমবারের মত মেয়র নির্বাচিত হয়ে গণভবনে শেখ হাসিনার কাছ থেকে শপথবাক্য পাঠ করেছিলেন সিলেট সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।
এদিকে ৪ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ১০নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হিসাবে শপথ গ্রহণ করতে সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির প্রশাসন ও জনসংযোগ পরিচালক তারেক উদ্দিন তাজ ঢাকার উদ্দেশ্যে যাত্রা করেছেন। ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ইং বুধবার সকাল ১০:৩০টায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ১০নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হিসাবে তিনি শপথ গ্রহণ করবেন।
গত ৩০ জুলাই ২০১৮ইং তারিখে অনুষ্ঠিত সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ঠেলা গাড়ি প্রতীক নিয়ে ১০নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হিসাবে বিপুল ভোটে বিজয়ী হন তারেক উদ্দিন তাজ। তিনি ১০নং ওয়ার্ডের একাধারে চার বারের নির্বাচিত কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র, বিএনপির ১০নং ওয়ার্ড কমিটির সাবেক আহ্বায়ক ও বর্তমান সিলেট মহানগর বিএনপি’র উপদেষ্ঠা এ্যাড. সালেহ আহমদ চৌধুরী’কে পরাজিত করে কাউন্সিলর নির্বাচিত হন।
উল্লেখ্য তারুন্যের অহংকার, তারেক সাবেক জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি হিসাবে পূর্বে নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করেন। আপাদ মস্তক নিরহংকারী চযরষড়ংড়ঢ়ু-তে মাস্টার্স ও এল.এল.এম ডিগ্রী ধারী এই ছাত্রনেতা সিলেটের বিভিন্ন ছাত্র আন্দোলন, সামাজিক আন্দোলনে সফল ভাবে নেতৃত্ব দিয়েছেন। এছাড়াও তারেক সিলেটের সর্বোচ্ছ বিদ্যাপীঠ সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির প্রশাসন ও জনসংযোগ পরিচালক হিসাবে প্রায় একযুগ ধরে কর্মরত আছেন।