গোলাপগঞ্জে কোরবানির পশুর হাটে চাঁদাবাজির মামলায় অস্ত্রসহ ৬ জন আটক

সেলিম হাসান কাওছার গোলাপগঞ্জ থেকে :
গোলাপগঞ্জে আ’লীগের নাম ভাঙ্গিয়ে পশুর হাটে চাঁদাবাজি করতে গিয়ে উপজেলা আ’লীগের বহিষ্কৃত দপ্তর সম্পাদক (গোল্ডেন গ্র“পের) আকবর আলী ফখর গ্র“পের ৬ জনকে গ্রেফতার করে শ্রীঘরে পাঠিয়েছে পুলিশ। ওই ঘটনায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী হন্য হয়ে খুঁজছে মামলা প্রধান আসামী ফখরকে। উপজেলার প্রধান পশুর হাটের ইজারদারের করা মামলায় রবিবার দিবাগত রাত ৩টায় অভিযান চালিয়ে বহিষ্কৃত ওই আ’লীগ নেতার বাড়ী থেকে ধারালো অস্ত্রসহ ৬ জনকে আটক করে পুলিশ। অভিযানের সময় ওই মামলার প্রধান আসামী আকবর আলী ফখর পালিয়ে যায়। ১৯/০৮/২০১৮ইং রাতে উপজেলা আ’লীগের বহিষ্কৃত দপ্তর সম্পাদক (গোল্ডেন গ্র“পের) আকবর আলী ফখরকে প্রধান আসামী ও ২৮জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরো ১০/১৫জনকে আসামী করে ৩৮৫/ ৩২৩/৪২৭/১০৯ এর ধারায় গোলাপগঞ্জ মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন বাজারের ইজারদার হাজী আব্দুল কাদির। মামলা নং-১৩। অভিযোগ হাতে পাওয়ার পর পরই গোলাপগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত ওসি (অপারেশন) দেলোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে উল্লেখিত আসামীদের বাড়ীতে অভিযান চালায় পুলিশ। রাত ৩টা ১০মিনিটে উপজেলার ফুলবাড়ী ইউপির দক্ষিণপাড়া গ্রামের মৃত সিদ্দেক আলীর ছেলে আকবর আলী ফখরের বাড়ীতে অভিযান চালায়। এ সময় ফখরের বাড়ীতে জরুরী বৈঠক চলছিল। ওই সময় ৬জনকে ১০/১২টি ধারালো অস্ত্র রামদাসহ আটক করলেও ফখরসহ অন্যান্যরা পালিয়ে যায়। গতকাল সোমবার আটককৃত আসামীদের বিরুদ্ধে পুলিশ বাদী হয়ে অস্ত্র আইনে আরো একটি মামলা করে। ১৮৭৮ সালের অস্ত্র আইনের ধারায় ওই মামলা দায়ের করেন এসআই মৃদুল কুমার ভৌমিক। মামলা নং-১৪। ওই মামলায় আসামী করা হয় আকবর আলী ফখরসহ ১০জনকে। গ্রেফতারকৃতরা হলে উপজেলার ফুলবাড়ী পূর্বপাড়া গ্রামের মির্জা মোঃ আজি উল্লার ছেলে জামান আহমদ জামাল (৩২ পৌরসভার সরস্বতী গ্রামের মৃত চান মিয়ার ছেলে শাহেদ আহমদ (৩০), ফুলবাড়ী দক্ষিণপাড়া গ্রামের সাহেদ আহমদের ছেলে শাকিল আহমদ (২০),একই গ্রামের ছইদ আলীর ছেলে কয়ছর আহমদ (২৭) পৌর সরস্বতি নিজগঞ্জ গ্রামের মুকিদ মিয়ার ছেলে সুহিন আহমদ (২০) ও ফুলবাড়ী দক্ষিণপাড়া গ্রামের কুরমান আলীর ছেলে শিপন আহমদ (১৯)।
এ বিষয়টি জানতে গোলাপগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত ওসি (অপারেশন) দেলওয়ার হোসেনর সাথে আলাপ করা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বাজারের ইজারদার হাজী আব্দুল কাদির এর করা মামলায় অভিযান চালিয়ে রবিবার গভীর রাতেই ৬জনকে অস্ত্রসহ আটক করেছে পুলিশ। পুলিশ বাদী হয়ে অস্ত্র আইনে একটি মামলাও করেছে। ওই মামলায় ফখরকেও আসামী করা হয়েছে। ওই মামলার অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতার করতে আইসশৃংঙ্খলা বাহিনী চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।