বিশ্বনাথে হাতুড়ি পেটা খেয়ে স্ত্রী হাসপাতালে, স্বামী শ্রীঘরে

বিশ্বনাথ থেকে সংবাদদাতা  :
বিশ্বনাথে পরকীয়ার কারণে স্বামীর হাতুড়ি পেটা খেয়ে স্ত্রী সাফিয়া বেগম (৪২) সিলেট নগরীর একটি হাসাপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। আর স্বামী সৌদী প্রবাসী আজম আলীকে (৫০) পুলিশে দিয়েছেন গ্রমাবাসী। গতকাল শুক্রবার সকালে প্রবাসী আজম আলীর নিজ গ্রাম উপজেলার বৈদ্যকাপন গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটেছে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত শুক্রবার বিকেলে সাফিয়া বেগমকে পার্কভিউ নামের একটি প্রাইভেট হাসপাতালে আইসিইউতে রাখা হয়েছে। থানা হাজতে থেকে প্রবাসী আজম আলী সাংবাদিকদের জানান, জুনেদ আহমদ নামের তার চাচাতো ভাইয়ের সঙ্গে তার স্ত্রীর পরকীয়া রয়েছে। দীর্ঘদিন থেকে বুঝানোর পরও কথা না শুনায় তিনি তার স্ত্রীকে হাতুড়ি পেটা দিয়েছেন।
থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে জানিয়ে থানার ওসি শামসুদ্দোহা পিপিএম বলেন, গুরুতর আহত অবস্থায় সাফিয়া বেগমকে হাসপাতালে পাটানো হয়েছে আর তার স্বামীকে আটক রাখা হয়েছে।