আইসিসির অনুমোদন পেল টি-টেন লিগ

স্পোর্টস ডেস্ক :
ক্রিকেট খেলাকে বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে দিতে সংযুক্ত আরব আমিরাতের ঘরোয়া ক্রিকেট টি-টেন লিগের অনুমোদন দিয়েছে আইসিসি।
এবার নিয়ে শারজায় বসতে যাচ্ছে টি-টেন লিগের দ্বিতীয় আসর। গত বছর ডিসেম্বরে শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বসেছিল দলপ্রতি ১০ ওভারের এই ক্রিকেট। ছয় দল নিয়ে সেই আয়োজিত সেই আসরে পাঞ্জাব লিজেন্ডসকে ৮ উইকেটে হারিয়ে শিরোপা জয় করেছিল কেরালা কিংস।
কেরালা কিংসের অধিনায়ক ছিলেন ইংল্যান্ডের বর্তমান ওয়ানডে দলপতি ইয়ন মরগ্যান আর পাঞ্জাব লিজেন্ডসের অধিনায়ক ছিলেন পাকিস্তানি অলরাউন্ডার শোয়েব মালিক। তবে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড বা বিসিসিআইয়ের সিদ্ধান্ত অনুসারে জাতীয় দলের বর্তমান কোনো সদস্য টি-টেন আসরে খেলতে পারেবন না। এবার টি-টেন লিগ হবে ১০ দিনের এবং দল থাকবে ৮টি। সেপ্টেম্বরে প্লেয়ার ড্রাফট শুরু হবে। তবে আফগানিস্তানের তারকা লেগ স্পিনার রশিদ খান (মারাঠা অ্যারাবিয়ান্স), পাকিস্তানের সাবেক অলরাউন্ডার শহীদ আফ্রিদি (পাখতুনস), শোয়েব মালিক (পাঞ্জাবি লিজেন্ডস), মরগ্যান (কেরালা কিংস), নিউজিল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক ব্র্যান্ডন ম্যাককালাম (রাজপুতস), ওয়েস্ট ইন্ডিজের সুনিল নারাইন (বেঙ্গল টাইগার্স), ড্যারেন স্যামি (নর্দার্ন ওয়ারিয়র্স) এবং অস্ট্রেলিয়ার শেন ওয়াটসন (করাচিয়ানস) এরইমধ্যে আইকন খেলোয়াড় হিসেবে নিজ নিজ দলে যুক্ত হয়েছেন।
চলতি বছরের মে মাসে টি-টেন লিগকে ক্রিকেটের জন্য ‘হুমকি’ হিসেবে সাব্যস্ত করেছিল আইসিসি। তবে তারা এই ফরম্যাটকে ক্রিকেটে অংশগ্রহণ বৃদ্ধির মাধ্যম এবং ক্রিকেটের আর্থিক সচ্ছলতার উপায় হিসেবেও দেখেছে। তবে তখন এটাও জানানো হয়েছিল যে, নতুন এই ফরম্যাটকে আইসিসি সমর্থনও করেনা এবং এই ফরম্যাটকে বিশ্বের দরবারে হাজির করার কোনো পরিকল্পনা তাদের নেই।
তবে এই নতুন ফরম্যাটের এই লিগে অনানুষ্ঠানিকভাবে আপত্তি তুলেছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। এই আপত্তির প্রধান কারণ শারজাহ’র ক্রিকেট সংক্রান্ত দুর্নীতিতে জড়িত থাকা। এবারও দুর্নীতিমুক্ত আসর আয়োজন আয়োজকদের জন্য কঠিন হবে বলেই মনে হচ্ছে।
কিছুদিন আগেই কাতার-ভিত্তিক আল-জাজিরা টেলিভিশন চ্যানেলের এক স্টিং অপারেশন থেকে এক ভয়াবহ চিত্র উঠে আসে। যেখানে ক্রিকেট ফিক্সংয়ের সঙ্গে আমিরাতের সরাসরি সম্পর্ক তুলে ধরা হয়। সেই অপারেশন থেকে পাওয়া তথ্য দেখিয়ে দিয়েছে ক্রিকেট ফিক্সিংয়ের সঙ্গে জড়িতদের সবচেয়ে প্রিয় স্থান আমিরাত এবং আইসিসি এটা জানে। তবে এবার আইসিসি’র অনুমোদন পাওয়ার পর প্রশ্নটা আবারও উঠবে কিনা সেটাই দেখার বিষয়।
আবার অনেকে এটাও বলছেন, যখন টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটের জনপ্রিয়তার ধাক্কায় টেস্ট এবং ওয়ানডে ক্রিকেট চাপের মুখে, সেখানে চলতি বছরের ২৩ নভেম্বর থেকে শারজায় শুরু হতে যাওয়া টি-টেন লিগের অনুমোদন পাওয়া ক্রিকেটবিশ্বের জন্য বেশ বড় ঘটনা বই কি!