ওসমানীনগরে হামলার ঘটনায় মামলা দায়ের

ওসমানীনগর থেকে সংবাদদাতা :
ওসমানীনগরে হামলার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। উপজেলার সাদীপুর ইউনিয়নের ইব্রাহীমপুর গ্রামের মিয়াধন আলী বাদি হয়ে শুক্রবার রাতে সেমানীনগর থানায় এই মামলাটি দায়ের করেন। মামলা নং- ২। মামলায় অভিযুক্তরা হলেন- ইব্রাহিমপুর গ্রামের নাজির উদ্দিনের পুত্র সুজিবুল আলম সুজা ও পাশ্ববর্তী গজিয়া গ্রামের উজির উদ্দিনের পুত্র তারেক মিয়া। মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ইব্রাহীমপুর গ্রামের ব্যবসায়ী মিয়াধন আলী বৃহস্পতিবার রাতে শেরপুর বাজারস্থ নিজ ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠান থেকে প্রাইভেটকার যোগে নিজ বাড়িতে পৌঁছেন। গাড়ী থেকে বাড়ির বারান্দায় নামার সাথে-সাথে পূর্ব শত্র“তার জের ধরে পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকা একই গ্রামের সুজাসহ অনান্যরা মিয়াধন আলীর প্রাইভেট কার চালক জাহেদ মিয়ার ওপর দেশীয় ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি হামলা চালায়। এ সময় স্থানীয় বাসিন্দা শফিকুর রহমান এগিয়ে আসলে হামলাকারীরা তাকেও মারাত্বক ভাবে আহত করে। হামলাকারীরা মিয়াধন আলীর প্রাইভেট কার (ঢাকা-মেট্টো-গ- ৩৯-৭০১৭) ভাংচুর করে। আহতেদের আর্ত চিৎকারে বাড়ির লোকজনসহ পাশ্ববর্তী লোকজন এগিয়ে আসলে হামলাকারীরা ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। স্থানীয়রা আহত জাহেদ মিয়াকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে আশঙ্কাজনক অবস্থায় সিলেট এমএ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। আহত শফিকুর রহমানকে বালাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে চিকিৎসা দেয়া হয়। ওসমানীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ আলী মাহমুদ বলেন- হামলার ঘটনায় প্রাথমিক সত্যতা পেয়ে মিয়াধন আলীর অভিযোগের ভিত্তিতে মামলাটি রুজু করা হয়েছে। তদন্তক্রমে পরবর্তী আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে। অভিযুক্তদের গ্রেফতারে পুলিশ তৎপর রয়েছে।