দোয়রাবাজারে হত্যা মামলার বাদী গ্রেফতার

দোয়ারাবাজার থেকে সংবাদদাতা :
দোয়ারাবাজারে বুরহান উদ্দিন হত্যা মামলার বাদী আব্দুর রাজ্জাক ভুট্টো (৪৫) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তিনি উপজেলার সদর ইউনিয়নের টেবলাই গ্রামের মৃত তমিজ আলীর পুত্র ও দুই পক্ষের সংঘর্ষে নিহত বুরহান উদ্দিনের আপন চাচা। শুক্রবার দিবাগত রাতে হত্যা মামলার আসামী পক্ষের দায়ের করা মারধর ও লুটের মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়। শনিবার দুপুরে তাকে সুনামগঞ্জ কোর্টে প্রেরণ করে দোয়ারাবাজার থানা পুলিশ।
উল্লেখ্য, টেবলাই গ্রামে আধিপত্য বিস্তার কে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় গুরুতর আহত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুরহান উদ্দিন নিহত হলে আব্দুর রাজ্জাক ভুট্টো বাদী হয়ে একই গ্রামের সিরাজ মিয়া, নুরুল ইসলাম সহ ১৫ জনকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরবর্তীতে আসামী পক্ষের বাড়ীঘর লুটপাট ও আসামী পক্ষকে মারধরের অভিযোগে আব্দুর রাজ্জাক ভুট্টো সহ ৫৪ জন কে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন আসামী পক্ষ। ওই মামলায় বর্তমানে জেল হাজতে রয়েছেন, মামলার বাদী আব্দুর রাজ্জাক ভুট্টোসহ ৪জন। তারা হলেন, শরীফ মিয়া, হাছেন আলী, আনিছ মিয়া।
নিহত বুরহান উদ্দিনের ছোট ভাই নিজাম উদ্দিন জানিয়েছেন, হত্যা মামলা দায়েরের পর থেকে আমরা আসামী পক্ষের লোকজন বেপরোয়া হয়ে ওঠেছেন। তাদের ভয়ে বর্তমানে আমাদের পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় আছি। মামলার তদন্ত ও কার্যক্রম ভেস্তে যাওয়ার জন্যই আসামী পক্ষ লুটপাটের মামলা দিয়ে বাদীকে গ্রেফতার করিয়েছে।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে দোয়ারাবাজার থানার ওসি সুশীল রঞ্জন দাস বলেছেন, বুরহান উদ্দিন হত্যা মালার বাদী আব্দুর রাজ্জাক ভুট্টো কে আটক করে কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে। তিনি আসামী পক্ষের দায়েরকৃত মারধর ও লুটপাট মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত প্রধান আসামী।