কমলগঞ্জে কিশোরকে নির্যাতন ॥ থানায় অভিযোগ দায়ের

কমলগঞ্জ থেকে সংবাদদাতা :
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে সফাত আলী (১৪ ) নামের এক কিশোরকে নির্যাতন করে মুখে স্কচটেপ লাগিয়ে হাত, পা বাঁধা অবস্থায় ধানী জমি থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার আদমপুর ইউনিয়নের বনগাঁও গ্রামে।
জানা যায়, কমলগঞ্জ উপজেলার আদমপুর ইউনিয়নের বনগাঁও গ্রামের হামিদ মিয়ার ছেলে সফাত মিয়াকে (১৪) একই গ্রামের চাঁন মিয়ার ছেলে লিটন মিয়া নানা প্রলোভন দেখিয়ে সপ্তাহখানেক আগে চট্টগ্রাম নিয়ে যায়। সেখানে কাজ করতে না পেরে সফাত একাই বাড়িতে ফিরে আসায় লিটন সফাতের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। ক্ষোভের জের ধরে গত শুক্রবার (২৭ জুলাই) রাত সাড়ে ১০ টায় মধ্যভাগ বাজার থেকে ফেরার পথে সফাতকে লিটন তার সঙ্গীদের নিয়ে আতর্কিত ভাবে মারধর করে তার নানাবাড়ির পাশে হাত পা বেঁধে মুখে স্কচটেপ মুড়ানো অবস্থায় ধানি জমিতে ফেলে যায়। পরবর্তীতে স্থানীয়রা গোঙানোর শব্দ শুনে তাকে উদ্ধার করে কমলগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করেন।এ ঘটনায় সফাত মিয়ার পিতা হামিদ মিয়া বাদী হয়ে শনিবার ২৮ জুলাই কমলগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। কমলগঞ্জ থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক সুরুজ আলীসহ একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।