সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কে ট্রাকের ধাক্কায় সিএনজি ও অটোরিক্সার যাত্রী নিহত ৪, আহত ৭

আতিকুর রহমান মাহমুদ ছাতক থেকে :
সিলেট-সুনামগঞ্জ আঞ্চলিক মহা-সড়কের গোবিন্দগঞ্জে ট্রাকের ধাক্কায় সিএনজি ও অটোরিক্সার চালকসহ ৪ জন নিহত ও গুরুতর আহত হয়েছেন মহিলাসহ ৭ ব্যক্তি। আশংকাজনক অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। গতকাল শনিবার দুপুরে সিলেট-সুনামগঞ্জ আঞ্চলিক মহা-সড়কের গোবিন্দগঞ্জ ব্রিজ এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন ছাতক সদর ইউনিয়নের মল্লি¬কপুর গ্রামের মৃত আব্দুর রউফের পুত্র অটোরিক্সার যাত্রী মুজাম্মেল হোসেন (৩৮), সিএনজি যাত্রী জামালগঞ্জ উপজেলার বড়গাছিয়া গ্রামের শরীয়ত উল্লাহর পুত্র সিএনজি চালক শফিকুল ইসলাম, একই গ্রামের মজুমদর আলীর পুত্র মোক্তার হোসেন (২৮) ও একই উপজেলার নোয়াগাঁও গ্রামের মৃত আব্দুল জলিলের পুত্র আব্দুল মোত্তালিব (৮০)। ট্রাকের ধাক্কায় একটি সিএনজি ফোরষ্ট্রোকসহ আরো দুটি অটো রিক্সা দুমড়ে-মুচড়ে গেছে। প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, সুনামগঞ্জগামী দ্রুত গতির ট্রাক (নং-ঢাকা মেট্রো-ট ১৩-০৭৫৯) গোবিন্দগঞ্জ ব্রীজ সংলগ্ন এলাকায় দাঁড় করানো একটি যাত্রীবাহী ফোরষ্ট্রোক ও অটোরিক্সাকে ধাক্কা দিলে চালকসহ ১১ যাত্রী গুরুতর আহত হয়। এ সময় সিএনজি-ফোরষ্ট্রোক ও অটোরিক্সা দুমড়ে-মুছড়ে যায়। সিএনজি যাত্রী আব্দুল মোত্তালিক, মোক্তার হোসেন, সিএনজি চালক শফিকুল ইসলাম, অটোরিক্সা যাত্রী মুজাম্মেল হোসেন, নওরিন বেগম (১৭) ও নাফি (৭) গুরুতর আহত হয়। স্থানীয়রা তাৎক্ষণিক আহতদের উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মুজাম্মেল হোসেন, আব্দুল মোত্তালিব, মোক্তার হোসেন, শফিকুল ইসলারমর মৃত্যু ঘটে। বেপরোয়া গতির এ ট্রাকটি ফোরষ্ট্রোককে ধাক্কা দেয়ার আগে সড়কে চলাচলরত ব্যাটারী চালিত যাত্রীবাহী অটো রিক্সাকে ধাক্কা দিয়ে খাদে ফেলে দেয়। ট্রাকের ধাক্কায় অটো রিক্সা চালক জুবায়ের আহমেদ অপু, যাত্রী মুজাম্মেল হোসেন, নওরিন বেগম ও নাফি গুরুতর আহত হয়। আহত অটো রিক্সা যাত্রী মুজাম্মেল হোসেনকে সিলেট নিয়ে যাওয়ার পথে তিনি মারা যান। দুর্ঘটনা কবলিত ট্রাকটি স্থানীয় লোকজন আটক করেছে।
এ ব্যাপারে জয়কলস হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই শরীফ ৪ ব্যক্তি নিহতের খবর নিশ্চিত করেছেন। দুর্ঘটনা কবলিত ট্রাক, সিএনজি-ফোরষ্ট্রোক উদ্ধার করে হাইওয়ে ফাড়িতে নেয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।