হে সুন্দর আগামী

আসাদ ইসলাম

তোমার জন্য হে আগামী।
হে সুন্দর আগামী। হে নিষ্কলঙ্ক আগামী।
তোমার জন্য-
আর কতকাল এ ধরণীর কোণে কোণে
রক্ত ঝরাবে মানুষ।
শুধু তোমার জন্য- আর কতকাল
অপেক্ষার প্রহর গুণবে
দেয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়া এই মানুষ।
শুধু তোমার জন্য-
অন্যায়ের প্রতিবাদ করেছিল বলে,
শুধু তোমাকে চেয়েছিল বলে,
কত টগবগে যুবকের বুকের তাজা খুন ঝরল।
কত মায়ের খালি হলো বুক,
কত মেয়ে হলো ধর্ষিতা,
কত মানুষের গলে দড়ি ঝুললো।
কত মানুষ নিখোঁজ হলো চিরতরে।

হে আগামী। হে নিষ্কলঙ্ক আগামী।
তোমার বিরুদ্ধে দেখ কত অসুর আজ।
কত শক্তি আজ।
নিরীহ, নিরস্ত্র মানুষের উপর দিয়ে বৃষ্টির মত
বোমা ছোড়ে অহরহ।
কত হাসপাতালে ছাদ ধ্বসিয়ে ছিন্নভিন্ন করে দেয়
ডাক্তার আর রোগীর শরীর।
যারা চেয়েছিল তোমায়- হে আগামী।

তোমার জন্য হে নিষ্কলঙ্ক আগামী।
অসুরদের বিষাক্ত গ্যাসের দমকা হাওয়ায়-
নিজের একমাত্র মাস্কটি খুলে
ছোট্ট ভাইয়ের মুখে লাগিয়ে
নিস্তেজ হয়ে যায় যে মেয়ে–
তার কী কোন দামই নেই তোমার কাছে হে আগামী?
হে সুন্দর আগামী। শুধু তোমাকে পাওয়ার জন্য-
দুবেলা ক্ষুৎপিপাসা মিটানোর আকাক্সক্ষায়
একটু ঠাঁই, পরনে কাপড় পাবার নিমিত্তে
আর কতকাল উদ্বাস্তু হবে মানুষ,
আর কতকাল বনে-জঙ্গলে, পথে-প্রান্তরে
উদ্ভ্রান্তের মত ছুটবে মানুষ।
আর কতকাল সমুদ্রের বালিতে
মুখ থুবড়ে পড়ে রবে
নিস্তব্ধ, নিষ্পাপ আইলানেরা।
আর কতকাল ভেসে ভেসে যাবে
শত মানুষের ফুলে ওঠা বেওয়ারিশ লাশ।

হে সুন্দর আগামী।
দেখো, তোমার পথ ধ্বসে কত অসুর আজ।
কত সারি সারি অসুর।
সন্ত্রাস নির্মূলের কথা বলে
কত রক্তের নদী বহায়,
কত মৃত লাশের উপর দাঁড়িয়ে
দানবের হাসি হাসে, অট্টহাসি–

হে সুন্দর আগামী। হে নিষ্কলঙ্ক।
তুমি কী আসবে সত্যিই?
না কি কোনদিনই নয়।