ওসমানীনগরে ট্রাক-মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৬, আহত ৫

ওসমানীনগর থেকে সংবাদদাতা :
সিলেট-ঢাকা মহাসড়কের ওসমানীনগরে ট্রাক ও মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ছয়জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আরও পাঁচ জনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় সিলেট ওসমানী হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থা আরও দুই জন মারা গেছেন। বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টায় মহাসড়কের ওসমানীনগরের ইলাশপুর বটেরতল এলাকায় দুর্ঘটনাটি ঘটে।
নিহতরা হলেন, আমির আলী (৩১)। সে মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল উপজেলার পশ্চিম লুয়ামুরা গ্রামের জমির আলীর পুত্র। আনছার আলী (২৭)। সে সুনামগঞ্জ জেলার দোয়ারাবাজার উপজেলার মুকির গাঁও গ্রামের জমির আলীর পুত্র। পারভিন আক্তার (৩২)। সে সুনামগঞ্জ জেলার দোয়ারাবাজার উপজেলার মুকির গাঁও গ্রামের জাকির হোসেনের স্ত্রী। ও জাকির হোসেনের শিশু কন্যা জাহানারা বেগম (১০)। ছাড়া তাৎক্ষণিক অন্যান্য নিহত ও আহতদের নাম পরিচয় জানা যায়নি।
জানা যায়, সিলেট থেকে ছেড়ে যাওয়া মাইক্রোবাস (ঢাকা মেট্রো-চ ১৪-০২৮৬) এবং বিপরীত দিক থেকে আসা ট্রাক (ঢাকা মেট্রো ট ১১-২৪৩৩)-এর মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ট্রাকের সামনের অংশ ও মাইক্রোবাস দুমড়ে মুচড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই চারজনের মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের লোকজন ঘটনাস্থলে গিয়ে চারজনের লাশ উদ্ধার করে। স্থানীয়দের সহযোগিতায় আহতদের চিকৎসার জন্য হাসপাতালে প্রেরণ করেন। আহতদের মধ্যে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও দুই জনের মৃত্যু হয়েছে বলে শেরপুর হাইওয়ে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে। হাইওয়ে পুলিশের পক্ষ থেকে তাদের নাম পরিচয় শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে। এদিকে এ ঘটনায় প্রায় ২ ঘন্টা সিলেট-ঢাকা মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ ছিল। এতে মহাসড়কের দুই দিক থেকে আসার শতশত যানবাহন আটকা পরে যাত্রীদের দুর্ভোগ পোহাতে হয়।
বালাগঞ্জ ওসমানীনগর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশনের ইনচার্জ ফজলুল হক জানিয়েছেন, দুর্ঘটনায় ঘটনাস্থল চার জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।এছাড়াও গুরুতর আহত ৫ জনকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য সিলেট ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করেছি।
দুর্ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন শেরপুর হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ বিমল চন্দ্র ভৌমিক বলেন, দুর্ঘটনাস্থল থেকে চার জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণকারী ব্যক্তি ও আহতদের নাম পরিচয় জানার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।