মেয়র প্রার্থীদের নিয়ে ব্যবসায়ীদের প্রত্যাশা শীর্ষক আলোচনা সভা ॥ নির্বাচিত হলে ব্যবসায়ীদের ১১ দফা দাবি বাস্তবায়নের অঙ্গীকার

“সুশৃঙ্খল ও পরিচ্ছন্ন নগরী গড়ার লক্ষ্যে সিসিকের মেয়র প্রার্থীদের কাছে ব্যবসায়ীদের প্রত্যাশা শীর্ষক’ এক আলোচনা সভা শনিবার রাত ৯টায় নগরীর জিন্দাবাজারের একটি হোটেলে অনুষ্ঠিত হয়। সিলেট জেলা ও মহানগর ব্যবসায়ী ঐক্য কল্যাণ পরিষদের উদ্যোগে ও সংগঠনের সভাপতি শেখ মো. মকন মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী ৬ জন প্রার্থী উপস্থিত ছিলেন। তারা হলেন, আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরান, বিএনপি মনোনীত প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী, স্বতন্ত্র প্রার্থী এহছানুল মাহবুব জুবায়ের, ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী প্রফেসর ডা. মোয়াজ্জেম হোসেন খান, বাসদ-সিপিবি প্রার্থী আবু জাফর, স্বতন্ত্র প্রার্থী এহছানুল হক তাহের।
আলোচনা সভায় উপস্থিত ব্যবসায়ীরা আগামীর সম্ভাব্য মেয়রদের ১১ দফা দাবি তুলে ধরেন। সকল মেয়রপ্রার্থীরাই দাবিগুলোর প্রতি সম্পূর্ণ একমত পোষন করেন। তারা নির্বাচিত হলে দাবিগুলো পূরণে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালাবেন বলে প্রতিশ্র“তি ব্যক্ত করেন। দাবিগুলোর মধ্যে ছিল ফুটপাত অবৈধ দখলমুক্ত করা, অপরিকল্পিতভাবে গড়ে উঠা অটোরিক্সা ও লেগুনা স্ট্যান্ড স্থানান্তরিত করা, যত্রতত্র নামে বেনামে মেলা অনুমোদন না দেওয়া, নগরী থেকে যানজট মুক্ত করা, চৌহাট্টা থেকে কোর্ট পয়েন্ট পর্যন্ত রাস্তায় ডিভাইডার স্থাপন করা, নগর পুলিশ চালু করা, গণশৌচাগার প্রতিষ্ঠা ও গণ পরিবহন চালু করা প্রভৃতি। সভায় বিশেষ করে বর্তমানে শিলং তীর নামে একটি জুয়ার আগ্রাসন থেকে নগরবাসীকে মুক্ত করার জন্য জোর দাবি জানানো হয়। নগরীর বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে রাজনৈতিক ঐক্য বজায় রাখতে হবে বলে সভায় মত প্রকাশ করা হয়। বক্তারা বলেন, প্রশাসন চাইলে সকল শৃঙ্খলা এক দিনেই অর্জন সম্ভব।
ক্বারী মো. সালেহ আহমদের পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে সূচীত অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন আলহামরা ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও মেট্রোপলিটন চেম্বারের পরিচালক আব্দুর রহমান রিপন।
মহানগর ব্যবসায়ী ঐক্য কল্যাণ পরিষদের সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হকের উপস্থাপনায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি এর সভাপতি খন্দকার শিপার আহমদ, সিলেট মেট্রোপলিটন চেম্বারের সভাপতি হাসিন আহমদ, বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা খন্দকার মুক্তাদির, সুজনের সভাপতি ফারুক মাহমুদ চৌধুরী, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদ প্রমুখ। অন্যান্যর মধ্যে বক্তব্য রাখেন আলহাজ্ব মতছির আলী, মো. সুয়েব খান সহ জেলা ও মহানগর সর্বস্তরের ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ।
অনুষ্ঠান শেষে দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনা করে মোনাজাত পরিচালনা করেন নাইরপুল জামে মসজিদের ইমাম ও খতিব মাওলানা নাজমুদ্দিন ক্বাশেমী। বিজ্ঞপ্তি