দুর্বৃত্তদের হামলায় চিত্রসাংবাদিক আহত

স্টাফ রিপোর্টার :
দৈনিক সংবাদ ও সিলেটভিউ২৪ডটকম’র নিজস্ব চিত্রসাংবাদিক ইদ্রিছ আলী দুর্বৃত্তদের হামলায় গুরুতর আহত হয়েছেন। তাকে ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ইদ্রিছকে হামলা থেকে রক্ষা করতে গিয়ে আহত হয়েছেন ফরিদ আহমদ নামের এক চিকিৎসক। গতকাল রবিবার বিকেল ৪টার দিকে শহরতলীর ধোপাগুল এলাকায় নিজ বাড়িতে ফেরার পথে এ ঘটনা ঘটে। আহত ইদ্রিছ আলী সদর উপজেলার খাদিমনগর ইউনিয়নের সাহেববাজারের বাসিন্দা সাবেক ইউপি সদস্য ইলিয়াস আলীর পুত্র।
আহত ইদ্রিছের পিতা ইলিয়াছ আলী জানান, রবিবার বিকেলে স্মার্টকার্ড আনতে ইউনিয়ন অফিসে যান ইদ্রিছ আলী। সেখানে মানুষের ভিড় দেখে বাড়িতে রওয়ানা দেন তিনি। ধোপাগুল ডাচ বাংলা এজেন্ট ব্যাংকিংয়ের সামনে যাওয়ার পর ৬ জন যুবক ক্রিকেটের স্টাম্প ও ব্যাট নিয়ে ইদ্রিছের ওপর হামলা চালায়। তারা বেধড়ক মারপিট করে তাকে। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। এসময় ইদ্রিছকে মারপিট থেকে বাঁচাতে স্থানীয় বরণগ্রামের চান মিয়ার পুত্র ডা. ফরিদ আহমদ এগিয়ে আসেন। কিন্তু তাকেও মারধর করে হামলাকারীরা। ইলিয়াস আলী হামলাকারীদের পরিচয় নিশ্চিত করেছেন। হামলাকারীরা হলো ধোপাগুলের আব্দুল জব্বারের পুত্র রাজন আহমদ রাজু (২৮) ও সুজন আহমদ (২৪), লাল মিয়ার পুত্র শিমুল (২৭), ইছরাখ আলীর পুত্র রিপন আহমদ এবং কছির মিয়া ও রুহেল নামের দুই যুবক। ইদ্রিছ আলী বর্তমানে ওসমানী হাসপাতালের ৪র্থ তলার ৫নং ওয়ার্ডে ভর্তি আছেন। ডা. ফরিদকেও ওসমানীতে ভর্তি করা হয়েছে।
সিলেট প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দের ক্ষোভ: সিলেট প্রেসক্লাবের সদস্য, ফটো সাংবাদিক ইদ্রিছ আলীর ওপর হামলার ঘটনায় সিলেট প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দ নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। সিলেট প্রেসক্লাব সভাপতি ইকরামুল কবির ও সাধারণ সম্পাদক ইকবাল মাহমুদ এক বিবৃতিতে হামলার ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন এবং হামলাকারীদের অবিলম্বে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।
এদিকে বাংলাদেশ ফটো জানালিস্ট এসোসিয়েশন সিলেট বিভাগীয় কমিটির সদস্য ফটো সাংবাদিক ইদ্রিছ আলীর ওপর হামলার ঘটনায় এসোসিয়েশনের সভাপতি আব্দুল বাতিন ফয়সল ও সাধারণ সম্পাদক শংকর দাস গতকাল রবিবার এক বিবৃতিতে হামলার ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন এবং হামলাকারীদের অবিলম্বে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।