নবীগঞ্জে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নারী-শিশুসহ আহত ২০

হবিগঞ্জ থেকে সংবাদদাতা :
হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ পৌর এলাকার তিমিরপুর গ্রামে পূর্ব শত্র“তার জের ধরে দু’পক্ষের সংঘর্ষে উভয় পক্ষের নারী-শিশুসহ ২০ জন আহত হয়েছেন। গুরুতর আহত অবস্থায় তিনজনকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। সোমবার দুপুর দেড়টার দিকে এঘটনা ঘটে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পৌর এলাকার তিমিরপুর গ্রামের মকছুদ মিয়া তালুকদারের সঙ্গে প্রতিবেশী গোলাপ মিয়ার জায়গা সংক্রান্ত বিষয়াদী নিয়ে দীর্ঘ ধরে বিরোধ চলে আসছে। এরই জের ধরে সোমবার দুপুর দেড়টার দিকে মকছুদ মিয়া তালুকদারের পুত্র ইকবাল হোসেন তালুকদার নিজেদের গবাদী পশু নিয়ে বাড়ি ফেরার পথিমধ্যে আগে থেকেই ওৎপেতে থাকা গোলাপ মিয়ার পুত্র সাকিন মিয়া, ফয়ছল মিয়া, রুহান আহমেদ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ইকবালের উপর হামলা চালায়। এ সময় ইকবালের শো-চিৎকারে তার পরিবারের লোকজন এগিয়ে আসলে উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের নারী-শিশুসহ ২০জন গুরুতর আহত হয়।
আহতরা হলেন, হামদু মিয়া তালুকদার (৩০), আজিজুর রহমান শাফি (২৮), বেলাল তালুকদার (২৪), ইকবাল হোসেন তালুকদার (১৮), কেয়া সরকার (১১), নমিতা সরকার (৩৫), সজল সরকার (১৮), কায়েছ মিয়া (২৬), গোলাফ মিয়া (৬০), খেলা বেগম (৩২), শাকিল মিয়া (২৩) খালেক মিয়া (১৮)।
আহতদের নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আশংকাজনক অবস্থায় হামদু মিয়া তালুকদার (৩০), আজিজুর রহমান শাফি (২৮), বেলাল তালুকদার (২৪) সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। অপর আহতদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।
এদিকে এ ঘটনার খবর পেয়ে নবীগঞ্জ থানার এসআই মাজহারুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের লোকজন মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানা গেছে।