পুলিশের মাদক বিরোধী অভিযান জোরদার ॥ কানাইঘাটে ৩শ’ বোতল ফেনসিডিলসহ আটক ৩ জন

কানাইঘাট থেকে সংবাদদাতা :
কানাইঘাট থানা পুলিশ চলমান মাদক বিরোধী অভিযান জোরদার করেছে। প্রতিধিন পুলিশ উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে মাদকদ্রব্য সহ মাদক ব্যবসায়ী ও সেবন কারীদের গ্রেফতার করে যাচ্ছে। গত বৃহস্পতিবার রাত ১০টর দিকে থানা পুলিশ মাদক বিরোধি অভিযান চালিয়ে ৩শত বোতল ভারতীয় ফেনসিডিল ও স্বামী-স্ত্রী সহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কানাইঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ মো: আব্দুল আহাদ জানতে পারেন গত বৃহস্পতিবার রাত ১০ টার দিকে জকিগঞ্জ উপজেলা থেকে কানাইঘাট সড়কের বাজারমুখী আসা একটি অটো-রিক্সা সিএনজি গাড়ীযোগে মাদকের একটি বড় চালান আসছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে কানাইঘাট দীঘিরপার ইউপির সড়কের বাজার এলাকায় সিলেট-জকিগঞ্জ সড়কে থানা পুলিশের একটি টিম প্রেরণ করা হয়। ফেনসিডিল বোঝাই অটো-রিক্সা সিএনজি গাড়ী সড়কের বাজার সংলগ্ন রামপুর গ্রামের পাশে আসা মাত্র থানা পুলিশের এসআই ইসমাইল হোসেন, এসআই আবু কাউছার ও সহকারী ডিআইও মো: আবু সুফিয়ান এর নেতৃৃত্ত্বে একদল পুলিশ রাস্তায় ব্যারিকেড দিয়ে সিএনজিটি আটক করে। এ সময় গাড়ীতে তল্লাশী চালিয়ে কয়েকটি চটের বস্তায় পলিথিনে মোড়ানো তিনশত বোতল ভারতীয় ফেনসিডিল উদ্ধার এবং সিলেট থ-১১-৯৭৫৩ অটো-রিক্সাটি আটক করেন। এ সময় যাত্রী বেশী মাদক ব্যবসায়ী দীঘিরপার ইউপির দীঘিরপার গ্রামের মইন উদ্দিনের পুত্র মাদক ব্যবসায়ী শাহাব উদ্দিন (৩৫) ও তার স্ত্রী নাজিয়া বেগম (৩০) এবং অটো-রিক্সা চালক একই গ্রামের শরীফ উদ্দিনের পুত্র বোরহান উদ্দিন (২৫) কে গ্রেফতার করে পুলিশ। থানা ডিউটি অফিসারের রুমে আটক অবস্থায় মাদক ব্যবসায়ী শাহাব উদ্দিন অপকটে মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত রয়েছে শিকার করে বলে সে উক্ত ভারতীয় ফেনসিডিল অটো-রিক্সা সিএনজি গাড়ীতে করে মাদক ব্যবসায়ীদের কাছে হস্তান্তর করার জন্য জকিগঞ্জ উপজেলার উত্তরগুল গ্রাম থেকে এক মাদক ব্যবসায়ীর কাছ থেকে নিয়ে এসে ফেনসিডিলের চালানটি সিলেট শহরে নিয়ে যাচ্ছিল। গ্রেফতারকৃত মাদক ব্যবসায়ী শাহাব উদ্দিন তার স্ত্রী ও সন্তানদের নিয়ে সিলেট শহরে বসবাস করে। সে পেশায় একজন অটো-রিক্সা সিএনজি চালক বলে জানায়। থানা ওসি আব্দুল আহাদ জানিয়েছেন গ্রেফতারকৃত শাহাব উদ্দিন একজন কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী। সে মাদক বহনের কাজে তার স্ত্রী নাজিয়া বেগম ও শিশুপুত্রদের মাদক বহনের কাজে ব্যবহার করে আসছিল। আটককৃত ফেনসিডিলের ব্যবসার সাথে আরো যারা জড়িত রয়েছে তাদের চিহ্নিত করে গ্রেফতার করা হবে। এ ঘটনায় গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার রাতেই পুলিশ বাদি হয়ে মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করেছে।