২০ দলীয় জোট নেতৃবৃন্দের সাথে এডভোকেট জুবায়েরের মতবিনিময় ॥ সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় আসন্ন সিলেট সিটি নির্বাচনে আমরা এগিয়ে যেতে চাই

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য, সিলেট মহানগর আমীর আসন্ন সিসিক নির্বাচনে সম্ভাব্য মেয়র পদপ্রার্থী এডভোকেট এহসানুল মাহবুব জুবায়ের বলেছেন, সামনে বহুল প্রত্যাশিত সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন। এই নির্বাচনে কেন্দ্র ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দের সিদ্ধান্ত মোতাবেক গণ মানুষের প্রিয় কাফেলা বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী মেয়র পদে প্রার্থী হিসেবে আমাকে মনোনয়ন দিয়েছে। ২০ দলীয় জোটের ২য় বৃহৎ দল হিসেবে জামায়াত জোটের কাছে এই সিটিতে প্রার্থীতা করতে চেয়েছে। আশা করি জোট নেতৃবৃন্দ আমাকে একক প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দিবেন। জাতীয় নির্বাচনে আমরা জোটবদ্ধভাবে করেছি এবং ভবিষ্যতেও করে যেতে প্রস্তুত রয়েছি। তবে স্থানীয় নির্বাচনে স্থানীয় নেতাকর্মীদের মতামতকে প্রাধান্য দিতেই জামায়াত সিটিতে প্রার্থী দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ইতোমধ্যে আমার পক্ষে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করা হয়েছে । সময় মতো সেই ফরম জমা দেয়ার প্রস্তুতি চলছে। আসন্ন সিটি নির্বাচনে মেয়র পদে আমি ২০ দলীয় জোট সিলেটের নেতৃবৃন্দের দোয়া ও সহযোগিতা কামনা করছি। সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টা আমরা সামনে নির্বাচনে এগিয়ে যেতে চাই।
তিনি মঙ্গলবার আসন্ন সিলেট সিটি নির্বাচনকে সামনে রেখে ২০ দলীয় জোট নেতৃবৃন্দের সাথে অনুষ্ঠিত মত বিনিময় সভায় সভাপতির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির কেন্দ্রীয় সিলেট বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক এমপি দিলদার হোসেন সেলিম, সিলেট মহানগর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আজমল বখত চৌধুরী সাদেক, খেলাফত মজলিশের সিলেট মহানগর সহ-সভাপতি অধ্যাপক আব্দুল হান্নান তাপাদার, জমিয়তের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা আব্দুল মালিক চৌধুরী, ইসলামী ঐক্যজোট সিলেট মহানগর সভাপতি মুফতী ফয়জুল হক জালালাবাদী, জাতীয় পার্টি (বিজেপি-আন্দালিব পার্থ) সিলেট জেলার আহ্বায়ক মোজাম্মেল হোসেন লিটন, এলডিপি জেলা সভাপতি সায়েদুর রহমান চৌধুরী রুপা, লেবার পার্টির মহানগর সভাপতি মাহবুবুর রহমান খালেদ, মহানগর বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এমদাদ হোসেন চৌধুরী, বিজেপির জেলা সদস্য সচিব একেএম নুরুল আম্বিয়া, মহানগর জমিয়তের ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারী আবু বকর সিদ্দিক সরদার, জাগপা মহানগর সেক্রেটারী শাহজাহান আহমদ প্রমুখ।
জামায়াত নেতৃবৃন্দের মধ্য থেকে উপস্থিত ছিলেন- জামায়াতের কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য সাবেক এমপি অধ্যক্ষ মাওলানা ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী, কেন্দ্রীয় মজলিশে শুরা সদস্য ও সিলেট জেলা দক্ষিণের আমীর মাওলানা হাবিবুর রহমান, জেলা উত্তরের আমীর হাফিজ আনোয়ার হোসাইন খান, মহানগর নায়েবে আমীর হাফিজ আব্দুল হাই হারুন ও মোঃ ফখরুল ইসলাম, জেলা উত্তরের নায়েবে আমীর সৈয়দ ফয়জুল্লাহ বাহার, মহানগর সেক্রেটারী মাওলানা সোহেল আহমদ, সহকারী সেক্রেটারী এডভোকেট আব্দুর রব, মোঃ শাহজাহান আলী ও ড. নুরুল ইসলাম বাবুল। বিজ্ঞপ্তি